নিরুপম সাহা, বনগাঁ, ৯ জুলাই

গঙ্গার পরিস্রুত পানীয় জল পেতে চলেছেন বনগাঁর মানুষ। এ বছরের মধ্যেই বনগাঁ পুরসভার ব্যবস্থাপনায় বাড়ি বাড়ি পরিস্রুত পানীয় জল পৌঁছে যাবে। জোর কদমে কাজ চলছে এই প্রকল্পের। বৃহস্পতিবার এই খুশির খবর শোনালেন বনগাঁ পুরসভার প্রশাসক শঙ্কর আঢ্য। 
রাজ্য জনস্বাস্থ্য দপ্তরের মাধ্যমে বনগাঁ শহরের অধিকাংশ পাড়ায় পানীয় জল পৌঁছলেও সেই অর্থে বাড়ি বাড়ি বিশুদ্ধ পানীয় জল পৌঁছানোর ব্যবস্থা এখনও চালু হয়নি। সেই ব্যবস্থার বাস্তব রূপ দিতে উদ্যোগী হন বনগাঁ পুরসভার তৎকালীন প্রধান শঙ্কর আঢ্য। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এবং পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের কাছে এ ব্যাপারে দরবার করেন তিনি। তাঁর আবেদনে সাড়া দিয়ে এই প্রকল্প মঞ্জুর করেন পুরমন্ত্রী। আর তারপরেই শুরু হয় প্রকল্পের কাজ। বনগাঁর আপনজন মাঠে ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট তৈরির কাজ ইতিমধ্যেই শেষ হয়েছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী নদিয়ার চাকদা এলাকা থেকে গঙ্গার জল পাইপ লাইনের মাধ্যমে এই ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্টে আসবে। সেখান থেকে জল পরিস্রুত করে তা বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হবে। চাকদা থেকে বনগাঁ পর্যন্ত জল আনার কাজ দেখভাল করছে রাজ্য পূর্ত দপ্তর। সেখানে সরকারি নিয়ম মেনে কাজ শেষ করতে একটু সময় লাগছে। এই পরিস্থিতিতে বিকল্প হিসেবে আপাতত ইছামতীর জলকে কাজে লাগানো যায় কিনা, সেই বিষয়টি খতিয়ে দেখতে বৃহস্পতিবার কেএমডিএ, রাজ্য জনস্বাস্থ্য দপ্তর–‌সহ বিভিন্ন দপ্তরের বাস্তুকারেরা বনগাঁয় আসেন। পুরসভার প্রশাসক–সহ তাঁর সহযোগীরা এই প্রতিনিধি দলকে নির্দিষ্ট এলাকা ঘুরিয়ে দেখান এবং তাঁদের সঙ্গে বৈঠক করেন। দিন দুয়েক আগে পুরপ্রশাসক নিজে কলকাতার উন্নয়ন ভবনে গিয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের পদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গে এই প্রকল্প নিয়ে বৈঠক করেন। এ ব্যাপারে তিনি এদিন বলেন, ‘‌মুখ্যমন্ত্রী এবং পুরমন্ত্রীর সহযোগিতায় বনগাঁবাসীর দীর্ঘদিনের চাহিদা বাড়ি বাড়ি পরিশুদ্ধ পানীয় জল পৌঁছে দেওয়ার কাজ আমাদের অনেকটাই এগিয়ে গেছে। আশা করি এ বছরের মধ্যেই এই পরিষেবা চালু করে দেওয়া সম্ভব হবে।’‌

উদ্বোধনের অপেক্ষায় বনগঁার পানীয় জল প্রকল্প। ছবি:‌ প্রতিবেদক

জনপ্রিয়

Back To Top