যজ্ঞেশ্বর জানা, হলদিয়া, ৫ ফেব্রুয়ারি- হলদিয়ার সুতাহাটা থানার খানপুরে স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদনকারী সেই ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা নাবালিকার প্রতারক প্রেমিককে অবশেষে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হল পুলিস। এর আগে অবশ্য অভিযুক্ত সিন্টু মণ্ডলকে ধরতে না পেরে তার বাবা বাচস্পতি মণ্ডল–সহ ৩ জনকে ধরেছিল পুলিস। এখনও জেলে রয়েছে তারা। রবিবার রাতে নন্দকুমারের বরগোদা এলাকায় এক আত্মীয় বাড়ি থেকে সুতাহাটা থানার পুলিস গ্রেপ্তার করে সিন্টুকে। নাবালিকা ধর্ষণের জন্য অভিযুক্তের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা রুজু করেছে পুলিস। সোমবার হলদিয়া আদালতের নির্দেশে তাকে ৩ দিনের জন্য নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে পুলিস। গ্রেপ্তারের ভয়ে অভিযুক্ত এতদিন বিহার, কর্ণাটকে পালিয়ে বেড়াচ্ছিল। মোবাইলের টাওয়ার লোকেশন ধরে সর্বত্র ছুটে বেড়ালেও পুলিস তাকে ধরতে ব্যর্থ হয়েছিল। অবশেষে নিজের জেলায় অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে স্বস্তি ফিরে পেয়েছে পুলিস। একই ভাবে অভিযুক্তের গ্রেপ্তারের খবরে খুশি প্রতারিত নাবালিকার পরিবার। তবে তাঁরা চান না অভিযুক্তের শাস্তি। তাঁরা চান, মেয়ের সামাজিক স্বীকৃতি। অর্থাৎ সিন্টুর সঙ্গের মেয়ের বিয়ে দিতে চান তাঁরা। নাবালিকার মা বলেন, ‘‌মেয়ে এবং তার সন্তানের স্বীকৃতির জন্য আমরা লড়াই চালিয়ে এসেছি।’‌

ধৃত সিন্টু মণ্ডল। ছবি:‌ প্রতিবেদক

জনপ্রিয়

Back To Top