আজকাল ওয়েবডেস্ক: যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অনুপম হাজরার গাড়ি ভাঙচুর করল এবং তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাল জনতা। অনুপমের অভিযোগ, রবিবার সকাল ১১টা নাগাদ তিনি যাদবপুরের শহিদ স্মৃতি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১৩৭ নম্বর বুথে গিয়েছিলেন, সেখানে ভোটারদের শুধুই আঙুলে কালি লাগিয়েই বিদায় দেওয়ার খবর পেয়ে। প্রিসাইডিং অফিসারের কাছে এব্যাপারে জবাবদিহিও চান অনুপম। তাঁর এই আচরণে ক্ষিপ্ত স্থানীয় মহিলা ভোটাররা অনুপমকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান।

চেঁচামেচির জেরে বুথ ছেড়ে বেরিয়ে যান বিজেপি প্রার্থী। অনুপমের দাবি, ঘটনার সময় প্রিসাইডিং অফিসার বুথে ছিলেন না। এরপর, মুকুন্দপুরের হেলেন কেলার স্কুলের বুথেও অনুপমকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁর গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। বিজেপির মন্ডল সভাপতি অরিন্দম রায়কে মারধরও করে জনতা বলে অভিযোগ।
অন্যদিকে, ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের নোদাখালি এলাকার ডোঙারিয়া স্কুলের বুথ মোড়েও বিজেপি প্রার্থী নীলাঞ্জন রায়ের গাড়িতে ভাঙচুর চালানো হয়।

নীলাঞ্জনের অভিযোগ, তিনি যখন বুথে ঢুকছিলেন, তখন সীমন্ত বৈদ্য নামে স্থানীয় দুষ্কৃতীর নেতৃত্বে কমপক্ষে ৫০ জনের বাইক বাহিনী পিছন থেকে হামলা চালিয়ে গাড়ি ভাঙচুর করে। তাঁকে খুনের চেষ্টা করা হয়। পুলিসের সামনেই ভাঙচুর হলেও তারা নিষ্ক্রিয় ছিল। পুরো ঘটনায় নির্বাচন কমিশনের উপর দায় চাপিয়ে নীলাঞ্জন বলেছেন, তাঁর উপর হামলার খবর আগাম কমিশনকে জানালেও তারা ঠুঁটো জগন্নাথ হয়ে ছিল। এমনকি কেন্দ্রীয় বাহিনী বা পুলিসকে পরিচালনা করতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ বলেও অভিযোগ করেছেন নীলাঞ্জন।
ছবি :‌ এএনআই    

জনপ্রিয়

Back To Top