শীর্ষ নেতৃত্বের জরুরি তলব, শুভেন্দুর দিল্লি সফর নিয়ে বাড়ছে জল্পনা

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বুধবার ফের একবার দিল্লি যাচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা হওয়ার পর থেকেই বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করতে দিল্লি যাচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী। এবারও বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব জরুরি তলব করেছেন বিরোধী দলনেতাকে। আর তাই বুধবার দিল্লি সফরে যাচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী। শুভেন্দু ঘনিষ্ঠদের মতে, এবারও বিজেপির শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক হবে শুভেন্দু অধিকারীর। বাংলায় বিজেপির পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক কী হবে, রাজ্যের পরিস্থিতি এখন কেমন রয়েছে, দলের সাংগঠনিক অবস্থা কেমন রয়েছে সব নিয়েই আলোচনা হবে। প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগেই দিল্লি গিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। সেইসময় শুভেন্দু অধিকারী দেখা করে বৈঠক করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার সঙ্গে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর সঙ্গেও বৈঠক করেন শুভেন্দু। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গেও আলাদা করে দেখা করে বৈঠক করেন। শুভেন্দু জানিয়েছিলেন, রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা ভেঙে পড়েছে। ভোট পরবর্তী হিংসায় ঘরছাড়া বিজেপি কর্মীদের বিষয়েও কথা বলেছিলেন। বাংলায় বিজেপির সংগঠন নিয়েও বৈঠকে আলোচনা হয়েছিল। এর পাশাপাশি বাংলায় ভোটে হারার পর থেকেই বিজেপি থেকে প্রচুর নেতা-‌কর্মী তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন। এবিষয়েও আলোচনা হবে এবারের বৈঠকে। এমনটাই মত রাজনৈতিক মহলের। বিজেপিতে নেতা-‌কর্মীদের ধরে রাখার বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেওয়া যায় ভাবছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা। উল্লেখ্য, রাজ্যপাল দিল্লি থেকে ফেরার পরই গতকাল শুভেন্দু রাজভবনে যান। রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে বৈঠক করেন। ভোট পরবর্তী হিংসায় ঘরছাড়া বিজেপি কর্মীদের বিষয়ে আলোচনা হয়। রাজ্যপাল এ বিষয়ে টুইটও করেন। রাজ্য সরকার এবং মমতা ব্যানার্জির সমালোচনা করেন রাজ্যপাল। রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করার পরই ফের শুভেন্দুর দিল্লিযাত্রা নিয়ে বাড়ছে জল্পনা। রাষ্ট্রপতি শাসন জারির পক্ষে সওয়াল করতেও দেখা যাচ্ছে রাজ্যপালকে। শুভেন্দু অধিকারীর গলাতেও বহুবার শোনা গেছে বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করা হোক এই দাবি।