Hooghly: বড়সড় গাঁজা পাচার চক্রের হদিশ পুলিশের, হুগলিতে গ্রেপ্তার ৮

মিল্টন সেন, হুগলি: আবারও সাফল্য হুগলি গ্রামীণ পুলিশের।

নাইট সুপারভাইসিং টিমের হাতে ধরা পড়ল দুটি হুন্ডাই গাড়ি। গাড়ি থেকে উদ্ধার হল একশো কেজির বেশি গাঁজা। গ্রেপ্তার করা হয়েছে আট জনকে। ধৃতদের মধ্যে পাঁচজন ওড়িশার বাসিন্দা। পাশাপাশি নম্বর প্লেটহীন গাড়ি ধরতে গঠন করা স্পেশাল টিমের হাতে ধরা পরল সাতটি বাইক।

মঙ্গলবার জাঙ্গীপাড়া থানায় হুগলি গ্রামীণ পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লাল্টু হালদার জানিয়েছেন, চন্ডীলার কলাছড়া এলাকায় তল্লাশি চালিয়ে গাঁজা পাচারকারী বড়সড় চক্রের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে ৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অভিযুক্তদের কাছ থেকে ১০৮ কেজি গাঁজা উদ্ধার হয়েছে। দুটি চারচাকা গাড়ি ও আটক করা হয়েছে। শীতকালে দুষ্কৃতী দৌরাত্ম্য বাড়ে। অপরাধ ঠেকাতে পুলিশ সুপার আমনদীপের নির্দেশে প্রত্যেক থানা এলাকায় নাইট সুপারভাইসিং টিম গঠন করা হয়। আর তাতেই সাফল্য আসে। সোমবার চন্ডীতলা থানার কলাছড়া অহল্যা বাঈ রোডে নাইট টিম তল্লাশি চালানোর সময় দুটি গাড়িকে আটক করে। সেই গাড়ি থেকেই গাঁজা উদ্ধার হয়। তারপরেই দুটি গাড়িতে থাকা ৮ জনকে আটক করে চন্ডীতলা থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। জিজ্ঞাসাবাদের পর অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হয়। এদিন ধৃতদের শ্রীরামপুর আদালতে পেশ করা হয়। জানা গেছে, অভিযুক্তরা ওড়িশা থেকে এসে ২৬ নম্বর জাতীয় সড়ক ধরে চাঁপাডাঙ্গার দিকে যাচ্ছিল। সেই সময় তাদের গাড়ি আটকে তল্লাশি চালানো হয়। গ্রেপ্তার হওয়া অভিযুক্তদের ৫ জন ওড়িশার বাসিন্দা বাকি ৩ জন চন্ডীতলার।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, বেশ কিছুদিন ধরেই নম্বর প্লেটহীন গাড়ি রাস্তায় ঘোরাঘুরি করতে দেখা যায়। অপরাধীরা এই নম্বর প্লেটহীন গাড়ি ব্যবহার করে। আবার কারও গাড়ি বা বাইক চুরি করে বেচে দেয়। তাই স্পেশাল টিম এই গাড়ি ধরতে তৎপর হয়। প্রথম সাফল্য মেলে গত ১৯ জানুয়ারি সীতাপুরে। রাতে একটি নম্বর প্লেটহীন বাইক ধরা পরে। এর পর সাতটি বাইট ধরা হয় শুধু জাঙ্গীপাড়া থানা এলাকা থেকেই। অপরাধ রুখতে অপরাধী ধরতে জেলার সীমানা এলাকায় নজরদারি ও তল্লাশি চলবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ সুপার।

ছবি: পার্থ রাহা 

আকর্ষণীয় খবর