চন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়,কাটোয়া: একশো দিনের কাজে ভারতসেরা হয়েছে পূর্ব বর্ধমান। তাতে অবশ্য আত্মতুষ্টির বালাই নেই। কাজের পরিসর বাড়াতে এবার জেলার পর্যটন কেন্দ্রগুলিকে ঢেলে সাজানোর ক্ষেত্রে হাতিয়ার করা হবে ১০০ দিনের কাজকে। এই মর্মে জেলাশাসক অনুরাগ শ্রীবাস্তবের নির্দেশিকা পৌঁছে গেল জেলায় জেলায়। 
নির্দেশিকায় উল্লেখ করা হয়েছে, পর্যটনকেন্দ্র হতে পারে, এমন এলাকাগুলি চিহ্নিত করতে হবে। তারপর যতটা সংস্কারের দরকার, সেটা করে পর্যটকদের জন্য তুলে ধরতে হবে। আর সংস্কারের কাজটা হবে ১০০ দিনের কর্মসংস্থান প্রকল্পে। দেশসেরার তকমা ধরে রাখতে জেলা প্রশাসনের এমন অভিনব উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন বিভিন্ন পর্যটনকেন্দ্র কর্তৃপক্ষ। কর্তৃপক্ষের মতে, এতে যেমন জায়গাগুলির হাল ফিরবে, তেমনি পর্যটক সমাগম বাড়লে সংশ্লিষ্ট এলাকার অর্থনৈতিক অবস্থারও উন্নতি হবে। নমুনা হিসেবে ১০০ দিনের কাজে ইতিমধ্যেই আউশগ্রাম ১ নং ব্লকের দিগনগরে ১৭৪০ সালে বর্ধমানের মহারাজা কীর্তিচন্দ মহতাব নির্মিত চঁাদনি (এলাকার লোকজন বলেন জলটুঙি) সংস্কার হয়েছে।

কেতুগ্রামের সতীপীঠ অট্টহাস। ছবি: প্রতিবেদক

জনপ্রিয়

Back To Top