দীপেন গুপ্ত,পুরুলিয়া: দক্ষিণ পূর্ব রেল আয় বাড়াতে পণ্যবাহী ট্রেন বেশি করে চালাতে চায়। তাদের এই সিদ্ধান্তের জেরে আদ্রা ডিভিশনে যাত্রিবাহী বেশ কিছু ট্রেন বাতিল করা ও বেশ কয়েকটি ট্রেনের যাত্রাপথ বদলের প্রস্তাব সামনে আসতেই শুরু হয়েছে আন্দোলন। একসঙ্গে এত ট্রেন বাতিল হওয়ার বিষয়টি নিয়ে সব রাজনৈতিক দল আন্দোলনে নামতে চলেছে। রেলের একটি নোটিসে বলা হয়েছে আগামী ৩১ মে পর্যন্ত ১৮ জোড়া ট্রেন বাতিল ও আরও চার জোড়া ট্রেনের যাত্রাপথ বদল করা হয়েছে। 
যদিও এবিষয়ে আদ্রা ডিভিশনের ডিআরএম নবীন কুমার বলেন, ‘‌এবিষয়ে আমি কিছু বলতে পারব না।’‌ এদিকে এই বিষয়টি সামনে আসতেই তৃণমূল, সিপিএম, এসইউসিআই–সহ বহু রাজনৈতিক দল আন্দোলনের হুমকি দিয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে পুরুলিয়া স্টেশনের ম্যানেজারকে বিক্ষোভ দেখানোর পাশাপাশি ডেপুটেশন দেওয়া হয়। রেলের একটি নোটিস ১৫ ফেব্রুয়ারি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। সেখানে পণ্যবাহী ট্রেন চলাচলে সুবিধার জন্য কিছু ট্রেন বাতিল ও কিছু ট্রেনের যাত্রাপথ সংক্ষিপ্ত করার সুপারিশ করা হয়েছে। যদিও রেলের একটি সূত্র থেকে জানা গিয়েছে, ডিভিশনাল অপারেটিং দপ্তরের তরফেই ট্রেন বাতিলের এই সুপারিশ করা হয়েছে। ডিআরএমকে অনুরোধ করা হয়েছে বিষয়টি রেলের কাছে পাঠানোর। ওই তালিকায় থাকা ১৮ জোড়া বাতিল ট্রেনের তালিকায় রয়েছে বেশ কয়েকটি এক্সপ্রেস ও মেমু ট্রেন। রেলের এমন সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সরব সব রাজনৈতিক দল। পুরুলিয়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি সুজয় ব্যানার্জি বলেন, ‘‌আমরা এমন সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে পথে নামব। একটাও ট্রেন বাতিল করা যাবে না।’‌ প্রাক্তন সাংসদ বাসুদেব আচারিয়া বলেন, ‘‌এই সিদ্ধান্ত কোনও ভাবেই মানা হবে না। আন্দোলনে নামব আমরা।’‌ বাঘমুন্ডির বিধায়ক তথা জেলা কংগ্রেসের সভাপতি নেপাল মাহাতো বলেন, ‘‌রেল যদি এমন জনবিরোধী সিদ্ধান্ত মানুষের ওপর চাপিয়ে দেয় তবে আন্দোলন হবে।’ নিত্যযাত্রীরাও রেলের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামতে চলেছেন। ‌‌

পুরুলিয়ার আদ্রা জংশন। ছবি: প্রতিবেদক

জনপ্রিয়

Back To Top