‌আজকালের প্রতিবেদন: ছেলেকে নিয়ে গর্বিত। কিন্তু ছেলেকে নিয়ে কঠোর মনোভাব দেখিয়েছেন, স্বীকার করে নিলেন যুবরাজ সিংয়ের বাবা যোগরাজ সিং। 
২০১১ বিশ্বকাপের সেরা ক্রিকেটার সোমবারই অবসর নিয়েছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে। ক্রিকেটার হিসেবে বেড়ে উঠুক ছোট্ট যুবি, বাবা হিসেবে এমনটাই বরাবর চেয়েছিলেন যোগরাজ। তার জন্য কী কী করেননি তিনি?‌ চন্ডিগড়ের বাড়ির পেছনের জায়গায় সিমেন্টের পিচ বানিয়েছেন ছেলের প্র‌্যাকটিসের জন্য। সেখানেই ট্রেনিং দিতেন যুবিকে। কিন্তু ভয়ে গা ছমছম করত একরত্তি ছেলের। কেন?‌ পাশের গ্যারাজে দেওয়ালে টাঙানো ছিল দুটো ড্রাগনের ছবি। সেদিকে চোখ গেলেই গা শিউরে উঠত যুবির। তবুও বাবা কঠোর অনুশাসনে বেঁধে রাখতেন ছেলেকে। যুবরাজের কথায়, ‘আমার কাছে বাবা ছিল ড্রাগনের মতোই। ওঁর দিকে তাকাতেই ভয় পেতাম। ‌কলেজ জীবনে বন্ধুদের সঙ্গে মেলামেশা করতেই দিত না বাবা। চাইত, আমাকে শুধু খেলতে হবে, বড় ক্রিকেটার হতে হবে।’‌ যুবি ক্যাচ মিস করেছেন। শাস্তি দিয়েছেন যোগরাজ। কী শাস্তি?‌ ক্যাচ মিস করলে অন্যদের শান্তি ছিল গোটা মাঠে ১০ পাক দৌড়নো। আর যুবির জন্য শাস্তি বরাদ্দ ছিল ৫০ পাক!‌ কোনও ম্যাচে অল্পের জন্য সেঞ্চুরি পাননি যুবি। শাস্তি?‌ বাড়িতে ঢুকতে দেননি যোগরাজ। সারা রাত ছেলে কাটিয়েছেন গাড়ির বনেটে!‌ বাবার কড়াকড়িতে যুবি হাঁফিয়ে উঠতেন। কিন্তু যোগরাজ মাথা ঘামাতেন না। পাঞ্জাবের হয়ে রনজি ম্যাচ খেলতে খেলতেই পেয়েছিলেন ছেলের জন্মের খবর। যোগরাজের কথায়, ‘‌তখন ওই মুহূর্তেই ঠিক করেছিলাম ছেলেকে চ্যাম্পিয়ন ক্রিকেটার বানাব। আমি যে পর্যায়ে পৌঁছতে চেয়েছিলাম, পারিনি। কিন্তু চেয়েছিলাম আমার ছেলে পৌঁছক।’‌ যুবিকে উদ্দেশ্য করে যোগরাজ বলেছেন, ‘‌ওর মতো ছেলে পেয়েছি বলে আমি কৃতজ্ঞ। ওকে ধন্যবাদ জানিয়েছি। বরাবরই ওকে বলেছি যে, ওর জন্য আমি গর্বিত।’‌ দেশের হয়ে একটি টেস্ট, ছয়টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা বাবার সংযোজন, ‘‌তোমার (‌যুবরাজ)‌ মনে হতেই পারে যে, আমি তোমার প্রতি কঠোর হয়েছি। কিন্তু আমি কিছু প্রমাণ করতে চেয়েছিলাম। আশা করব, সেটা তুমি বুঝতে পেরেছ।’‌ বাবা–ছেলে এখন একসঙ্গে থাকেন না। তাই বলে সম্পর্ক নষ্ট হয়নি। বাবা–মা’‌র বিচ্ছেদের পরও যোগরাজের প্রতি শ্রদ্ধা হারাননি যুবরাজ। বরং অবসরের সিদ্ধান্ত জানানোর কয়েকদিন আগে বাবার সঙ্গে দেখা করে গল্প করেছেন, পুরনো দিনে ফিরে গেছেন। যুবির কথায়, ‘‌গত ২০ বছরে বাবার সঙ্গে এইভাবে কথাই বলিনি!‌’‌ 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top