আজকাল ওয়েবডেস্ক: ফুটবল দলগত খেলা হলেও নাম কিনে নেন তাঁরাই যাঁরা গোল করে ম্যাচ জেতান। যুগে যুগে মানুষ মনে রেখেছে ফরোয়ার্ডদেরই, ভাল খেলেও উপেক্ষিত থেকেছেন ডিফেন্ডাররা। তিন দিন পরেই শুরু ইউরো কাপ। এই টুর্নামেন্টেও নজর থাকবে সেই স্ট্রাইকারদের ওপরেই। আজ আলোচনা করা যাক সেরা কিছু স্ট্রাইকারদের নিয়ে।
হ্যারি কেন: প্রিমিয়ার লিগে এবার সর্বোচ্চ গোলদাতা এবং সর্বোচ্চ অ্যাসিস্ট। তবু দল কোনও ট্রফি পায়নি। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, এই ব্যাপারটাই ইংল্যান্ড অধিনায়ককে চাগিয়ে রাখবে। দক্ষতা প্রশ্নাতীত। গত বিশ্বকাপে সোনার বুট জেতা কেন এবার ইউরো মাতাতে পারেন। 
রবার্ট লেওয়ানডস্কি: গ্রুপ স্টেজ পেরতে পোল্যান্ডের ভরসা সেই বায়ার্ন স্ট্রাইকার। এ মরসুমে বুন্দেশলিগায় যথারীতি সর্বোচ্চ গোলদাতা। ২০২০ সালে ব্যালন ডো'র পুরস্কার বাতিল না হলে তাঁর পাওয়া নিশ্চিত ছিল। 
সিরো ইমমোবিলে: ইটালিতে নবজাগরণ ঘটিয়েছেন কোচ আন্তনিও কন্তে। গোল পেতে তাঁর তুরুপের তাস ইমমোবিলে। 
রোমেলু লুকাকু: ম্যান ইউ থেকে ইন্টার মিলানে গিয়ে ফর্ম ফিরে পেয়েছেন বেলজিয়ান স্ট্রাইকার। তাঁকে বল জোগানোর লোকেরও অভাব নেই, যে কারণে বেলজিয়াম এবার ইউরো জেতার অন্যতম দাবিদার। 
মেমফিস দিপে: ইনিও এককালে ম্যান ইউতে খেলতেন। ফরাসি লিগে গিয়ে নিজেকে পুনরুদ্ধার করেছেন। এই মুহূর্তে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন ডাচ তারকা। 
কিলিয়ান এমবাপে: পরবর্তী প্রজন্মের অন্যতম সেরা মনে করা হচ্ছে এঁকে। বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পেয়ে গেছেন, এবার ইউরোও জিততে চাইবেন।
ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো: আরও কতদিন এই তালিকায় তিনি থেকে যাবেন তা তিনিই জানেন। ৩৬ চলছে, এখনও লিগে সর্বোচ্চ গোলদাতা। ফিটনেস তরুণদের লজ্জা দিতে পারে। পর্তুগালের কাণ্ডারি এবারেও তিনিই।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top