Virat Kohli: বিরাট সংঘাত, জুনিয়র ক্রিকেটারদের অভিযোগ! একদিনের ক্রিকেট থেকেও অধিনায়কত্ব যাবে কোহলির?

আজকাল ওয়েবডেস্ক: একদিনের আন্তর্জাতিকেও হয়ত আর বেশিদিন অধিনায়কের ভূমিকায় দেখা যাবে না বিরাট কোহলিকে। ২০২৩ বিশ্বকাপে নতুন নেতার অধীনেই বিশ্বজয় করতে নামবে টিম ইন্ডিয়া! পরিস্থিতি সেদিকেই গড়াচ্ছে। বিরাট কোহলিকে নিয়ে তোলপাড় বিশ্বক্রিকেট। কোন্দল বোর্ডের অন্দরমহলেও। মাত্র তিনদিনের মধ্যে দুটো বড় সিদ্ধান্ত। টি-২০ তে ভারতের অধিনায়কত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর নেতৃত্ব থেকেও সরে যাওয়ার কথা জানিয়ে দিলেন কোহলি।

কিন্তু হঠাৎ একের পর এক হটকারি সিদ্ধান্ত কেন? বোর্ডের এক সূত্র থেকে জানা গেল, কোহলিকে নিয়ে ভারতীয় শিবিরে অসন্তোষ ক্রমশ বাড়ছে। বিসিসিআইয়েরও গলার কাঁটা এখন ভারত অধিনায়ক। কিন্তু বর্তমান প্রজন্মের বিশ্বের সেরা ক্রিকেটারকে নিয়ে এত সমস্যা কোথায়?

বোর্ডের এক শীর্ষ কর্তার দাবি, এই পরিস্থিতির জন্য দায়ী খোদ কোহলি। মাঠের বাইরে কোনওরকম প্রয়োজনে পাওয়া যায় না বিরাটকে। দলের ক্রিকেটারদের সঙ্গে কোনও যোগাযোগ রাখেন না। সতীর্থদের জন্য সবসময় নিজের ঘরের দরজা খোলা রাখতেন এমএস ধোনি। ক্রিকেটীয় কারণ বা ব্যাক্তিগত বিষয়ে পরামর্শ দিতেন। জুনিয়রদের গাইড করতেন। কিন্তু বিরাট পুরো উল্টো। মাঠের বাইরে নিজেকে ধরা ছোঁয়ার বাইরে রাখেন। সেই তুলনায় অনেক বেশি টিমম্যান রোহিত শর্মা। জুনিয়রদের খাওয়াতে নিয়ে যান। তাঁদের উদ্দীপ্ত করেন। ভুলত্রুটি বোঝান। ক্রিকেটারদের মানসিক দিকটা বোঝেন তিনি। তাই বিরাটের থেকে রোহিতের অনেক কাছে টিম ইন্ডিয়ার ক্রিকেটাররা।

বোর্ডের এক কর্তার থেকে জানা গিয়েছে, ম্যান ম্যানেজমেন্টেও ডাহা ব্যর্থ বিরাট। ভারত অধিনায়কের ঔদ্ধত্য আর মেনে নিতে পারছে না দলের ক্রিকেটাররা। শান্তি নেই টিম ইন্ডিয়ার ড্রেসিংরুমেও। নিউজিল্যান্ডের কাছে টেস্ট বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপ হারের পরই বিষয়টি প্রথম প্রকাশ্যে আসে। বোর্ডের কাছে সরাসরি অভিযোগ জানায় কয়েকজন জুনিয়র ক্রিকেটার।

শোনা যাচ্ছে এই দলে একজন সিনিয়রও ছিল। কোহলির ওপর আস্থা হারিয়েছে তাঁর সতীর্থরা। বিরাটের আচরণ, ব্যবহার নিয়ে সমস্যা কোচিং স্টাফদের মধ্যেও। কয়েকদিন আগে নেটে ব্যাট করার সময় তাঁর একটা ভুল শুধরে দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন টিম ইন্ডিয়ার একজন কোচিং স্টাফ। প্রকাশ্যে তাঁর ওপর চিৎকার করেন কোহলি। বিষয়টি কানে গিয়েছে বোর্ড কর্তাদের। তাই ভেতর ভেতর ভাবনা-চিন্তা চলছে। বিরাট নিজে ২০২৩ বিশ্বকাপ পর্যন্ত নেতৃত্ব করতে চাইলেও সেটা কতটা সম্ভব হবে এখনই বলা যাচ্ছে না।

আরও পড়ুন: রাতভর বৃষ্টিতে বানভাসি হাওড়া, জলের তলায় ৩০ টি ওয়ার্ড