আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ২০১৬ আইপিএলে চারটি সেঞ্চুরি সহ করেছিলেন ৯৭৩ রান। সঙ্গে ৪০টির বেশি ওভার বাউন্ডারি। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে প্রথম ম্যাচে ডাবল সেঞ্চুরি। সেই ইনিংসে একটা বলও হাওয়ায় খেলেননি বিরাট। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে নিয়ে এই দুটি উদাহরণ সামনে টেনে আনলেন টিম ইন্ডিয়ার ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠোর।
হঠাৎ করে এই দুটি উদাহরণ রাঠোর কেন সামনে আনলেন?‌ এক সাক্ষাৎকার ভারতীয় দলের ব্যাটিং কোচ বোঝাতে চাইলেন, যে কোনও পরিস্থিতিতে বিরাট নিজেকে মানিয়ে নিতে পারেন। সে সাদা বলের ক্রিকেট হোক বা লাল বলের টেস্ট ক্রিকেট। আরও আছে। রান তাড়া করার সময় বিরাটের ক্যালকুলেটিভ ক্রিকেটের প্রশংসা শোনা গেল রাঠোরের গলায়।
তিনি বললেন, ‘‌এটাই অবাক করে। কী করে খেলে বিরাট? ডিফেন্স করার সময় সেটাই করে। আবার পরের ওভারেই কোনও বোলারকে অ্যাটাক করছে। ওর এই ট্রান্সফরমেশন অনেকবার দেখেছি। সব সময় কিছু না কিছু ভেবে চলেছে। কীভাবে দলকে টেনে নিয়ে যাবে, এটা কখনও হারিয়ে যায় না। সব থেকে বড় ব্যাপার ওর মতো পরিশ্রমী ক্রিকেটার আগে দেখিনি। কমিটমেন্ট কাকে বলে সেটা বিরাটের কাছ থেকে পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে ওর থেকে বড় উদাহরণ কিছু হতে পারে না।’‌ 
ডিসেম্বরে ভারতীয় দল অস্ট্রেলিয়া সফরে যাবে। সেই সিরিজের পাঁচ মাস আগে থেকে অস্ট্রেলিয়া দলের মানসিকতার খবর মিলেছে। রাঠোর বলছেন, ‘‌নানা সাক্ষাৎকারে ওরা বারবার বিরাটকে টেনে আনছে। অন্য কোনও ক্রিকেটারের নাম কখনও শুনেছেন? শুনতে পাবেন না। দলের পুরো চেহারা বদলে দিতে একা বিরাটই যথেষ্ট। সেটা ওরা জানে। তাই এখন থেকে ভাবছে, বিরাটের ব্যাট কীভাবে থামাবে। কারণ, বিরাট খেলতে শুরু করলে পৃথিবীর কোনও বোলার মাথা তুলে দাঁড়াতে পারবে না।’‌ 
 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top