উৎপল চ্যাটার্জি- বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করে দিল ভারত। প্রথমেই বলে রাখি, এই দল নিয়ে বিশেষ আলোচনার কিছু নেই। কারণ দলে কোনও চমক নেই। গত কয়েক মাস ধরে যে দলটা ভাবা হয়েছিল, সেই দলটাই বাছা হয়েছে। একটা বাচ্চা ছেলেকেও যদি জিজ্ঞেস করা হত, বিশ্বকাপে ১৫ জনের দল কী হবে, সে ১৪ জনের নাম বলে দিত। যাবতীয় আলোচনা ছিল মিডল অর্ডারের একটা জায়গা নিয়ে। সেখানে দীনেশ কার্তিককে নেওয়া হয়েছে।
আমি দল নিয়ে বিস্মিত নই, কারণ গত কয়েক মাস ধরে এদেরই তো ঘুরিয়ে–‌ফিরিয়ে খেলানো হয়েছে। এদের নিয়েই পরীক্ষা–‌নিরীক্ষা করা হয়েছে। এই দল নিয়ে বিতর্কের কোনও জায়গা নেই। অনেকে প্রশ্ন তুলবেন, দলে কেন বিজয় শঙ্কর, দীনেশ কার্তিক রয়েছে?‌ কেন ঋষভ পন্থ, অম্বাতি রায়ডু, শ্রেয়স আয়াররা নেই?‌ আমার কথা হল, এদের মধ্যে তফাতটা একেবারেই উনিশ–‌বিশ। যে কোনও কাউকে নেওয়া যেত, যে কোনও কাউকে বাদ দেওয়া যেত। ১৫ জনের বেশি তো আর রাখা যাবে না। তাই কাউকে না কাউকে বাদ পড়তেই হত।
এবার প্রশ্ন, এই দল বিশ্বকাপে কতটা কী করবে?‌ আমার ধারণা, ভারত ভাল খেলবে, অনেক দূর যাবে। শুরুতেই যেটা বলেছিলাম, যে এই দলটাকেই অনেক দিন ধরে ঘুরিয়ে–‌ফিরিয়ে খেলানো হচ্ছে। অস্ট্রেলিয়ার কাছে ঘরের মাঠে শেষ একদিনের সিরিজে শুধু এই দলটা হেরেছে। তার আগে অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডে গিয়ে তাদের একদিনের সিরিজে হারিয়েছে এই দল। একসঙ্গে অনেকদিন খেললে দলের স্পিরিটটা ভাল তৈরি হয়। এই ভারতীয় দলের স্পিরিট অসম্ভব ভাল।
তবে একটা খারাপ দিকও আছে। দলে কোনও চমক না থাকা মানে বিপক্ষ দলগুলোও চমকাবে না। বিপক্ষ দলগুলোর কাছেও এই ক্রিকেটাররা পরিচিত। কোহলিদের প্রত্যেককে নিয়ে হোমওয়ার্ক তৈরি তাদের। কার কী শক্তি, দুর্বলতা সবটাই তাদের জানা। এখন দেখার নেতিবাচক প্রভাবগুলো কাটিয়ে ইতিবাচক বিষয়গুলোকে ভারত কতটা কাজে লাগাতে পারে।‌‌‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top