আজকালের প্রতিবেদন
সোমবার থেকে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কোয়ারেন্টিন সেন্টার গড়ার কাজ শুরু হয়ে যাবে ক্রিকেটের নন্দনকাননে। ওয়াংখেড়েতে কোয়ারেন্টিন সেন্টারের পরিকল্পনা হলেও শেষমুহূর্তে বাতিল হয়ে যায়। ফলে করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে দেশের প্রথম স্টেডিয়াম হিসেবে ঐতিহ্যের ইডেনের নাম উঠে গেল। 
শুক্রবার লালবাজারে কলকাতা পুলিশের স্পেশ্যাল কমিশনার জাভেদ শামিমের সঙ্গে বৈঠক করেন সিএবি সভাপতি অভিষেক ডালমিয়া। সেখানেই সিদ্ধান্ত হয় ইডেনের ক্লাব হাউসের বিপরীতে ‘‌ই’‌, ‘‌এফ’‌, ‘‌জি’‌, ‘‌এইচ’‌ এবং প্রয়োজনে ‘‌জে’‌ ব্লকের গ্যালারির নীচের অংশ কোয়ারেন্টিন সেন্টার গড়ার জন্য ছেড়ে দেওয়া হবে। অভিষেক বলেন, ‘‌এমন কঠিন পরিস্থিতিতে প্রশাসনকে সহযোগিতা করাই আমাদের কর্তব্য। ক্রিকেট এবং সিএবি–‌র দৈনন্দিন কাজকর্মের কথা মাথায় রেখে ক্লাব হাউস ও সংলগ্ন এলাকা (‌বি, সি, কে, এল ব্লক)‌ সুরক্ষিত রাখা হচ্ছে। মাঠকর্মী ও অন্য কর্মীদের ডরমেটারিতে সরিয়ে আনা হচ্ছে। আশা করি আগামী সপ্তাহের শুরুতেই  কাজ শুরু হয়ে যাবে।’‌ শহরের নামী চিকিৎসকরা ওই সেন্টারে সহযোগিতা করবেন বলে জানায় সিএবি।
ইতিমধ্যে প্রয়োজনীয় কাজ শুরু করে হয়ে গিয়েছে। শনিবার ছয় মাঠকর্মীকে ডরমেটারিতে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। অন্য কর্মীদের ‘‌বি’‌, ‘‌সি’‌ ব্লকে অস্থায়ীভাবে রাখা হচ্ছে। তাঁদের খাওয়া–দাওয়ার ব্যবস্থা করছে সিএবি। যুগ্মসচিব দেবব্রত দাসের কথায়, ‘‌কোয়ারেন্টিন সেন্টারের জন্য ছেড়ে দেওয়া ব্লকগুলোর সঙ্গে যোগাযোগের সব রাস্তা বন্ধ করার পাশাপাশি মাঠের দিকের অংশ টিন দিয়ে ঘিরে দেওয়া হচ্ছে। আমরা সুরক্ষার বিষয়ে সজাগ।’

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top