আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ অবশেষে স্বস্তি। ক্রিকেটার শান্তাকুমারণ শীশান্তের আজীবন নির্বাসন প্রত্যাহার করে নেওয়ার নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। বিসিসিআইয়ের প্রশাসক কমিটিকে তিন মাসের মধ্যে শাস্তি পুনর্বিবেচনা করার নির্দেশ দিল সর্বোচ্চ আদালত। 
শুক্রবার বিচারপতি অশোক ভূষণ এবং কে এম জোসেফের বেঞ্চ শুক্রবার স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, ‘‌বোর্ড কী শাস্তি দেবে তা জানার অধিকার আছে শ্রীশান্তের।’‌ যদিও এই রায় দিল্লি হাইকোর্টে ক্রিকেটারটির বিরুদ্ধে যে ফৌজদারি মামলা চলছে, তাতে কোনওভাবেই প্রভাব ফেলবে না। হাইকোর্টে দিল্লি পুলিশ আদালতের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে মামলা দায়ের করেছে। প্রসঙ্গত আদালত স্পট ফিক্সিং কান্ডে অভিযুক্ত শ্রীশান্ত সহ বাকি ক্রিকেটারদের বেকসুর খালাস করে। সেই রায়কেই চ্যালেঞ্জ জানিয়ে পাল্টা মামলা করে দিল্লি পুলিশ। 
উল্লেখ্য, কেরল হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ শ্রীশান্তের উপর আজীবন নির্বাসনের বোর্ডের শাস্তির নির্দেশকে বহাল রেখেছিল। সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেন ভারতের হয়ে টি২০ ও ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ জেতা ক্রিকেটার। শুক্রবার সেই মামলাতেই শ্রীশান্তের পক্ষে রায় দেয় সুপ্রিম কোর্ট। আদালতের রায়ে খুশি শ্রীশান্ত। তিনি বলেছেন, ‘‌সুপ্রিম কোর্টের রায়কে স্বাগত। এবার দ্রুত ক্রিকেটে ফিরতে চাই।’‌ অবশ্য ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড কী জবাব দেয় তার দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে শ্রীশান্তকে। 
২০১৩ সালে আইপিএলে স্পট ফিক্সিং কান্ডে জড়িয়ে পড়েছিলেন শ্রীশান্ত। দোষী প্রমাণিত হওয়ায় বিসিসিআই তাঁকে ক্রিকেট থেকে আজীবনের জন্য নির্বাসিত করে। 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top