‌আজকালের প্রতিবেদন: ওয়েস্ট ইন্ডিজ হয়তো সিরিজের প্রথম টেস্ট জিতবে না। তবে, সাধ্যমতো লড়ে গেলেন জেসন হোল্ডাররা। অনেকেই ভেবেছিলেন, ৪–‌৫ ওভারের মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বাকি দুটো উইকেট পড়ে যাবে। সেখানে ওঁরা যোগ করলেন আরও ৩৩ রান। কাটিয়ে দিলেন আরও ১৫.‌২ ওভার। এমনকী শুক্রবারের অপরাজিত ব্যাটসম্যানরা দিব্যি প্রথম এক ঘণ্টা অপরাজিত থাকলেন। বুমরা, ইশান্তরা প্রভাব বিস্তার করতে পারেননি দেখে কোহলি আক্রমণে এনেছিলেন জাদেজাকে। অন্যপ্রান্তে সামি। দু’‌জনেই একটি করে উইকেট তুলে নিলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম ইনিংস থামল ২২২ রানে। পিছিয়ে থাকলেন হোল্ডাররা ৭৫ রানে।
উইকেট থেকে প্রাণ যেন খানিকটা উবে গিয়েছিল। এটা যদি বুমরা–‌ইশান্তদের উইকেট না–‌পাওয়ার কারণ হয়, দ্বিতীয় কারণ লেংথ বিচারে ভুল করা। এই সুযোগে হোল্ডার দিব্যি ব্যাট করলেন। কেন ৮ নম্বরে আসেন, বোধগম্য হল না। ইংল্যান্ডের অ্যান্ডারসন, স্টোকস, ব্রডদের বিরুদ্ধে দ্বিশতরান করেছিলেন। তবু ব্যাটিং অর্ডারে ওপরের দিকে আসতে চাইছেন না। তাঁর সঙ্গে ব্যাট করছিলেন কামিন্স। রান না করে শুধুই উইকেট আগলে রাখছিলেন। হোল্ডার যখন সামির বল থার্ডম্যান বাউন্ডারিতে পাঠাতে গিয়ে ঋষভের হাতে ক্যাচ দিয়ে ৩৯ রান করে ফিরে গেলেন, তখনও কামিন্স ৪৩ বল খেলে ০ রানে অপরাজিত ছিলেন। জাদেজার বলে বোল্ড হলেন ০ রানে। ব্র‌্যাকেটে লেখা ছিল, ৪৫ বল ধরে তিনি ৬৬ ফুটের ক্রিজ আঁকড়ে ছিলেন। রান করব না, উইকেটও দেব না, এটাই ছিল তাঁর মনোভাব। কামিন্সের এমন দৃঢ়চেতা মানসিকতার কারণেই ভারতীয় বোলাররা প্রথম এক ঘণ্টায় জুটি ভাঙতে পারেননি। 
ইনিংসের শেষে স্কোরবোর্ডে চোখ বোলাতে গিয়ে দেখা যাচ্ছে, ইশান্ত শর্মা পেয়েছেন ৫ উইকেট, মাত্র ৪৩ রান দিয়ে। এটা তাঁর ৯১তম টেস্ট। ১০০ টেস্ট ম্যাচ খেললেন বলে। জাদেজা ও সামি পেলেন ২টি করে উইকেট। বুমরার ঝুলিতে ১টি। এখনকার ওয়েস্ট ইন্ডিজ সম্পর্কে যেমন ধারণা, স্কোরবোর্ডেও রয়েছে তেমন প্রতিফলন। ভারতের ২৯৭ রানের জবাবে ২২২ পর্যন্ত পৌঁছনোটাই যেন বিরাট ব্যাপার। এ সব কারণের জন্য, অ্যান্টিগার স্যর ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামে মেরেকেটে ১০০ জন দর্শক হয়তো ছিল, তাও রবিবারের সকাল ও দুপুর। নিজেদের দেশে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভাল খেলতে না পারলে, গ্যালারি ওদেশে ফাঁকাই থাকবে টেস্ট ক্রিকেটে।
দেখেশুনে মনে হচ্ছে, বৃষ্টি যদি বাগড়া না দেয়, তাহলে বিরাটের টিম ইন্ডিয়া প্রথম টেস্টেই ১–‌০ ব্যবধান তৈরি করে ফেলবে। মনে হয় না, ম্যাচের বাকি সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রত্যাঘাত করতে পারবে। শনিবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম ইনিংসের শেষে, ম্যাচের গতিবিধি দেখে মনে হচ্ছে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের পরাজয়ের মঞ্চ প্রস্তুত।
স্কোর
ভারত প্রথম ইনিংস:‌ ২৯৭। ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম ইনিংস:‌ (‌‌আগের দিনের ৩ উইকেটে ৮২ রানের পর)‌‌ ব্রাভো এলবিডব্লু ব বুমরা ১৮, চেজ ক রাহুল ব ইশান্ত ৪৮, হোপ ক ঋষভ ব ইশান্ত ২৪, হেটমেয়ার ক ও ব ইশান্ত ৩৫, হোল্ডার ক ঋষভ ব সামি ৩৯, রোচ ক কোহলি ব ইশান্ত ০, কামিন্স ব জাদেজা ০, গ্যাব্রিয়েল অপরাজিত ২, অতিরিক্ত ৮, মোট (‌‌৭৪.‌২ ওভারে)‌‌ ২২২। উইকেট পতন:‌ ৪/‌৮৮, ৫/‌১৩০, ৬/‌১৭৪, ৭/‌১৭৯, ৮/‌১৭৯, ৯/‌২২০। বোলিং:‌ ইশান্ত ১৭–৫–৪৩–৫, বুমরা ১৮–৪–৫৫–১, সামি ১৭–৩–৪৮–২, জাদেজা ২০.‌২–৪–৬৪–২, হনুমা ২–০–৭–০। ভারত দ্বিতীয় ইনিংস:‌ রাহুল অপরাজিত ৪, মায়াঙ্ক অপরাজিত ৬, অতিরিক্ত ০, মোট (‌‌৩ ওভারে বিনা উইকেটে)‌‌ ১০। বোলিং:‌ রোচ ২–০–৪–০, গ্যাব্রিয়েল ১–০–৬–০।(‌‌*স্কোর অসম্পূর্ণ)‌‌‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top