সংবাদ সংস্থা
মুম্বই, ১২ জুলাই

তিনি সহ–অধিনায়ক। তবে সব কিছুতে নিজেকে জড়িয়ে ফেলতে, সব কিছুতে নাক গলাতে একেবারেই ভালবাসেন না। তাই আগ বাড়িয়ে অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে কোনও পরামর্শ দিয়ে তাঁর পরিকল্পনা ঘেঁটে দেওয়ারও পক্ষপাতী নন। বরং অধিনায়ককে স্বাধীনভাবে কাজ করতে দিতেই ভালবাসেন অজিঙ্ক রাহানে। 
তা হলে ভারতীয় দলের সহ–অধিনায়ক হিসেবে তাঁর ভূমিকা ঠিক কী?‌ রাহানের জবাব, ‘‌ভাইস ক্যাপ্টেন হিসেবে আমার দায়িত্ব হল পেছনে বা আড়ালে থেকে নিজের কাজ করে যাওয়া। সব কিছুতে আমি একেবারেই নাক গলাতে যাই না। ক্যাপ্টেনকে অনেক কিছু নিয়ে ভাবতে হয়। ভাইস ক্যাপ্টেন হিসেবে আমিও কিছু কিছু পরিকল্পনা মনের মধ্যে কষে রাখি। প্রয়োজনে মতামত দিই। তবে অধিকাংশ সময় চুপই থাকি। বিরাট যখন কোনও পরামর্শ চায়, তখন অবশ্যই দিই। কোন বোলারকে কখন ব্যবহার করবে, কীভাবে ফিল্ডিং সাজাবে— সব কিছুই ক্যাপ্টেনকে মাথায় রাখতে হয়। পরিস্থিতি বুঝে পরিকল্পনা সাজিয়ে রাখতে হয় ভাইস ক্যাপ্টেনকেও। হতেই পারে কখনও কখনও পরিকল্পনা সফল হল না। তখন বিকল্প পরিকল্পনা ক্যাপ্টেনকে জানাই। বেশ কয়েকবার বিকল্প পরিকল্পনা কাজে লেগেছে।’‌ 
কাঁধে চোট পাওয়ায় কোহলির পরিবর্তে অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছিলেন ২০১৭ সালে। ধরমশালায় অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্টে। ভারত ম্যাচটা জিতেছিল ৮ উইকেটে। সিরিজ জিতেছিল ২–১–এ। ওই ম্যাচ নিয়ে প্রশ্ন করায় রাহানে বলেছেন, ‘‌কোনওদিন ভাবিনি দেশকে নেতৃত্ব দেব। টেস্ট ম্যাচ শুরুর একদিন আগে জানতে পেরেছিলাম। বিরাটই জানিয়েছিল। অনিলভাই ছিল কোচ। বিরাট খেলতে পারছে না তাই আমাকে দায়িত্ব নিতে হবে অনিলভাইও বলেছিল। ওই মুহূর্তটা নিঃসন্দেহে স্পেশ্যাল ছিল। ওই ম্যাচটার আগে সিরিজের ফল ছিল ১–১। সেখান থেকে ২–১–এ আমরা সিরিজ জিতেছিলাম।’‌(ফাইল ছবি) ‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top