আজকালের প্রতিবেদন- রবি শাস্ত্রীর ভাবনাচিন্তার সঙ্গে তিনি কোনও কালেই একমত নন। এবারও হতে পারলেন না। এবারের কোন ভাবনা?‌ বিশ্বকাপে ভারতের ব্যাটিং লাইনআপে অদল–বদল করা, বিশেষ করে বিরাট কোহলিকে চারে পাঠানো— ভারতীয় কোচের এই দুই ভাবনারই বিরোধিতা করেছেন সৌরভ গাঙ্গুলি। বলেছেন, ‘‌কাগজে পড়ে জানলাম, বিরাটকে চারে পাঠানোর কথা ভাবছেন রবি শাস্ত্রী!‌ তা হলে তিনে কে নামবে?‌ হতে পারে অম্বাতি রায়ডুকে তিনে নামিয়ে, চারে বিরাটকে পাঠাল। কিন্তু সেটা ঠিক হবে না। কারণ, তিনে বিরাট কোহলি নামের ওজনটাই বিশাল। একদিনের ক্রিকেটে ভারতীয় ব্যাটিং লাইন আপের মূল শক্তিই হল, ধাওয়ান, রোহিত, বিরাট— এই কম্বিনেশনটা। কেদার যাদবের সঙ্গে ছয়ে আসবে ধোনি। সাতে হার্দিক পান্ডিয়া। তাছাড়া দীনেশ কার্তিকও আছে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে আসন্ন পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ভারতের উচিত ঋষভকে খেলানো। ছয়ে নেমে ও কী ম্যাচ উইনারের ভূমিকা নিতে পারছে?‌ এটা দেখে, বুঝে নেওয়া যাবে। কারণ, ঋষভ ম্যাচ জেতানো প্লেয়ার। তাই ওকে সুযোগ দেওয়াটা খুবই দরকার।’‌ 
তবে কুলদীপ যাদবকে টিম ম্যানেজমেন্ট যেভাবে ব্যবহার করছে, সেই ব্যাপারে সহমত পোষণ করেছেন সৌরভ। বলেছেন, ‘‌ভারতীয় দল কুলদীপকে একেবারে ঠিকঠাক ব্যবহার করছে। ও কেমন বল করে, কী কী করতে পারে, সবটুকু এখনই দেখিয়ে দেওয়ার দরকার নেই। চাহাল আছে, জাদেজা রয়েছে, ক্রুনাল পান্ডিয়াও একদিনের দলে ছাপ রাখতে পারে। ও দলে থাকা মানে ব্যাটিং লাইনআপের নিচের দিকের শক্তি বেড়ে যাওয়া। ও উইকেট যেমন নেয়, রানও করতে পারে। যে দলের ব্যাটিং ও বোলিংয়ে গভীরতা আছে, সেই দলই ভাল। বিশ্বকাপের আগে এইগুলোর দিকে নজর রাখলেই চলবে। অযথা অনেক দূরে কিছু এখন ভাবার দরকার নেই। বিশ্বকাপের প্রস্তুতি গত এক বছর ধরেই ভারতের চলছে। দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ডে ভাল করেছে ভারত। জয়ের থেকে ভাল প্রস্তুতি আর কিছু হয় না। নিশ্চিত, ইংল্যান্ডে আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই ভারত খেলতে যাবে।’‌  ‌‌‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top