আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রাজনৈতিক অস্থিরতা। টানাপোড়েন অব্যাহত দুই দেশের মধ্যে। যার ফলে ভারত–পাক দ্বিপাক্ষিক ক্রিকেট সিরিজ দীর্ঘদিন ধরেই বন্ধ। শেষবার দু’‌দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ হয়েছিল ২০১৩ সালে। আর দু’‌দেশ শেষবার টেস্ট সিরিজে মুখোমুখি হয়েছিল সেই ২০০৮ সালে। বর্তমানে শুধুমাত্র আইসিসি টুর্নামেন্টেই দু’‌দেশের সাক্ষাৎ হয়। এই ধারাটাই বদলাতে চাইছেন প্রাক্তন পাক জোরে বোলার শোয়েব আখতার। কিছুদিন আগেই দেশের অন্যতম সেরা প্রাক্তন অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং বলেছিলেন, ভারত–পাক দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলাধুলার জন্য ভীষণ জরুরী। 
ইতিমধ্যেই দেশের অ্যামেচার কবাডি ফেডারেশন পাকিস্তানে স্বীকৃতিহীন দলকে পাঠিয়েছিল। ডেভিস কাপ টেনিসে আবার দুই দেশ নিরপেক্ষ জায়গায় খেলেছে। তারপরই শোয়েব বলেছেন, ‘‌পাকিস্তান এখন নিরাপদ। ভারতের কবাডি দল খেলে গেছে। বাংলাদেশ টেস্ট খেলতে আসছে। তাহলে ভারতের খেলতে আসতে অসুবিধা কোথায়?‌ অন্ততপক্ষে নিরপেক্ষ জায়গায় তো দু’‌দেশের ক্রিকেট সিরিজ হতেই পারে।’‌ এরপরই আখতারের সংযোজন, ‘‌কবাডি দল আসছে। দু’‌দেশের মধ্যে বাণিজ্য চলছে। তাহলে ক্রিকেটের ক্ষেত্রে অসুবিধা কোথায়?‌ এটা খুবই হতাশাজনক যে ক্রিকেটের কথা উঠলেই রাজনীতি সামনে চলে আসে। পাকিস্তান বিশ্বের অন্যতম অতিথিপরায়ণ দেশ। শেহবাগ, সৌরভ, শচীন আমাদের দেশেও জনপ্রিয়।’‌ এদিকে সোমবারই কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজু অ্যামেচার কবাডি ফেডারেশনকে নির্দেশ দিয়েছেন একটি তদন্ত কমিটি গড়ার। বেসরকারী যে দল পাকিস্তান গিয়েছিল তা নিয়েই বিস্তারিত জানতে চান রিজিজু। তিনি বলেছেন, ‘‌স্বীকৃত দল যায়নি। বেসরকারী যে দল গেছে তা নিয়ে তদন্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’‌ 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top