আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিতর্কে জড়াল ভারতীয় ক্রিকেটার শিখর ধাওয়ানের নাম। করোনা আবহেই দেশজুড়ে বাড়ছে বার্ড–ফ্লুর আতঙ্ক। ইতিমধ্যে একাধিক জায়গায় সতর্কতা জারি হয়েছে। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে নৌকায় ভ্রমণের সময় পাখিদের খাওয়ালেন ধাওয়ান। আর তারপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করলেন সেই ছবি। যা নিয়েই বিতর্ক তৈরি হয়েছে। আর এই কারণে বিপাকে পড়লেন ওই নৌকোর মাঝি। তাঁর বিরুদ্ধে তদন্তেরও নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। গত সপ্তাহেই বারাণসী ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন শিখর ধাওয়ান। এরপর কাশী বিশ্বনাথ মন্দির এবং কালভৈরবের মন্দিরেও যান তিনি। তারপরই সামনে একটি ঝিলে নৌকায় চড়ে ঘোরেনও। তখনই তিনি ওই ভুলটি করেন। সেখানকার পাখিদের খাবার দেন। এদিকে, বার্ড ফ্লুর আশঙ্কায় দেশের বিভিন্ন রাজ্যে একাধিক বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। বারাণসীর ওই ঝিলে নৌকোয় চড়া বা পাখিদের খাবার দেওয়ার উপরও বিধিনিষেধ জারি করা ছিল। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় শিখরের ওই ছবিতে দেখা যাচ্ছে শুধু নৌকায় ঘোরা নয়, পাখিদের খাবারও খাওয়াচ্ছেন ভারতীয় দলের তারকা। এমনকি তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবির সঙ্গে ক্যাপশনে লেখেন, ‘‌পাখিদের খাবার খাওয়াতেই তো আনন্দ।’‌ 
সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিটি ভাইরাল হতেই নড়েচড়ে বসে স্থানীয় প্রশাসন। ইতিমধ্যে বারাণসীর জেলাশাসক কৌশল রাজ শর্মা জানিয়েছেন, ওই নৌকার মাঝির বিরুদ্ধে তদন্ত করা হবে। তবে ধাওয়ানের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করা হবে না। তিনি বলেছেন, ‘‌কয়েকজন মাঝি যে প্রশাসনের নির্দেশ মানছে না, সেখবর আমাদের কাছে পৌঁছেছে। বারণ সত্ত্বেও তাঁদের নৌকোয় বসে অনেকেই পাখিদের খাওয়াচ্ছেন। এই ধরনের মাঝিদের চিহ্নিত করা হয়েছে। তবে পর্যটকরা এ ব্যাপারে তেমন কিছু জানতেন না। তাই তাঁদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না।’‌ 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top