আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মা। এই শব্দটার সঙ্গে এখন ভালরকম পরিচিত টেনিস সুন্দরী সানিয়া মির্জা। শক্তি, দায়বদ্ধতা, পরিপূর্ণতা লুকিয়ে রয়েছে ওই একটি শব্দে। প্রথমবার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার অভিজ্ঞতা থেকে ব্যক্তিগত জীবনের সঙ্গে পেশাগত জীবনের ভারসাম্য রক্ষা, সব বিষয় নিয়ে একটি আবেগঘন খোলা চিঠি সানিয়া পোস্ট করলেন নিজের ভার্চুয়াল ওয়ালে।
যুগের পরিবর্তন ঘটলেও আজও তথাকথিত পুরুষতান্ত্রিক সমাজে আবদ্ধ নারীজীবন। মেয়েদের অতিরিক্ত লেখাপড়া, বিয়ের পরও বাইরে কাজ করাকে উৎসাহ দেওয়া হয় না। সংসার সামলে স্বপ্ন দেখার স্বাধীনতায় লাগাম টেনে দেওয়া হয় অনেক ক্ষেত্রেই। কিন্তু ইচ্ছে থাকলেই উপায় হয়। ইচ্ছেশক্তি দিয়েই মাতৃত্ব ও পেশাগত জীবনে ভারসাম্য রাখা সম্ভব। বিশ্বাস না হারিয়ে একাগ্রতা আর পরিশ্রম দিয়েই নিজের পরিচয় বানানো যেতে পারে। মা হওয়ার পর এই উপলদ্ধিই করেছেন হায়দরাবাদি টেনিস তারকা। আর এই উপলদ্ধির জন্য অনেকটা কৃতিত্ব সানিয়া দিতে চান সেরেনা উইলিয়ামসকে। 
সানিয়া জানান, মার্কিন টেনিস তারকাকে নিয়ে তৈরি ডকুমেন্টরি ‘‌বিয়িং সেরেনা’‌ দেখেই সমস্ত মায়ের জন্য খোলা চিঠি লেখার অনুপ্রেরণা পেয়েছেন তিনি। জানান, ‘‌মা হওয়ার অভিজ্ঞতা সত্যিই অন্যরকম। কারণ এই বিষয়টা অনেক কিছু শেখায়। আমি নিজেকে অনেক বেশি ভালবাসতে শিখেছি। নিজেকে আরও ভাল মানুষে পরিণত করেছি।’‌ সানিয়া আরও বলেছেন, ইজহান আসার পর নিশ্চিত ছিলেন না আবার কোর্টে ফিরতে পারবেন কি না। তবে ইচ্ছাশক্তি দিয়েই পরিস্থিতিকে জয় করেছেন। স্বাস্থ্যকর ডায়েট করে ২৬ কেজি ওজন কমিয়েছেন। তাই তাঁর বিশ্বাস তাঁর মতো আরও হাজারো মা এভাবেই ঘুরে দাঁড়াতে পারবেন। এবং লাখো মা এভাবেই দিনের পর দিন দুই জীবনের মধ্যে সামঞ্জস্য রেখেই এগিয়ে চলেছেন। তাই চিঠিতে তাঁদের কুর্নিশও জানিয়েছেন তিনি। আর চিঠির শেষে লিখেছেন, ‘‌ইতি, সানিয়া মির্জা, একজন মা ও টেনিস খেলোয়াড়।’‌ 

ছবি:‌ সানিয়া মির্জার টুইটার থেকে নেওয়া। 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top