Indonesia Football: ইন্দোনেশিয়ার ঘটনায় দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির নির্দেশ দেশের সরকারের

আজকাল ওয়েবডেস্ক: উৎসবে মুখর পৃথিবীর এক প্রান্ত।

বাংলায় চলছে দুর্গাপুজো, ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে পালিত হচ্ছে নবরাত্রি। কিন্তু বিশ্বের আরেক প্রান্তে শুধুই অন্ধকার। ইন্দোনেশিয়ার মালাংয়ের ফুটবল মাঠে পদপিষ্টের ঘটনায় আচমকা অন্ধকার নেমে এসেছে একাধিক মানুষের জীবনে। ঘটনায় মৃতের সংখ্যা ক্রমশ বেড়েই চলেছে। তারমধ্যে সবচেয়ে হৃদয়বিদারক ঘটনা হল, এই তালিকায় ৩২জন শিশুও রয়েছে। তাঁদের প্রত্যেকের বয়স ৩ বছর থেকে ১৭ বছরের মধ্যে। এটা জানার পর আরও নড়েচড়ে বসেছে সেই দেশের সরকার। কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। জানানো হয়েছে, দোষীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইন্দোনেশিয়ার মুখ্য নিরাপত্তা মন্ত্রী মামুদ এমডি বলেন, 'আগামী কয়েকদিনের মধ্যে দোষীদের খুঁজে বের করে উপযুক্ত শিক্ষা দেওয়া হবে। তাঁদের সবার পরিচয় প্রকাশ্যে আনতে হবে। পাশাপাশি পুলিশকেও দেখতে হবে তাঁদের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় কোনও বদল আনা যায় কিনা।' এই ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধেও আঙুল উঠেছে। যথাযত সময় পর্যন্ত অপেক্ষা না করেই কাঁদানে গ্যাস ছুড়তে শুরু করে পুলিশবাহিনী। যার জেরেই এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। দিশেহারা হয়ে এলোপাথাড়ি ছুটতে আরম্ভ করে সমর্থকরা। একসঙ্গে সকলে বাহির পথের দিকে দৌড়তে শুরু করে। যার ফলে পদপিষ্টের ঘটনা ঘটে। প্রসঙ্গত, ইন্দোনেশিয়ায় ফুটবল দাঙ্গা এই প্রথম নয়। প্রায় প্রতি ম্যাচেই সমর্থকদের মধ্যে ঝামেলা লেগেই থাকে। তবে এত বড় দুর্ঘটনা এই প্রথম। সোমবার অভিশপ্ত স্টেডিয়ামের বাইরে মৃতদের উদ্দেশে ফুল, মালা দেওয়া হয়। জ্বালানো হয় মোমবাতিও।  

আকর্ষণীয় খবর