আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ অবশেষে ইংল্যান্ড সফরে যাচ্ছেন ফাখর জামান, মহম্মদ হাফিজরা। তৃতীয় দফায় করোনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে দ্বিতীয় দফার পরীক্ষায় নেগেটিভ আসা ওই ছয় ক্রিকেটারেরই। তাই ইংল্যান্ডে যেতে আর কোনও বাধা রইল না তাঁদের।
ইংল্যান্ড সফরে উড়ে যাওয়ার আগে পাকিস্তানের সব ক্রিকেটার এবং সাপোর্ট স্টাফদের করোনা পরীক্ষা করা হয়। প্রথম পরীক্ষায় ২০ জনের ফল নেগেটিভ এলেও দশ জন পাক ক্রিকেটারের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। যে দশ জন ক্রিকেটার করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন তাঁদের মধ্যে ছয় জনের দ্বিতীয় পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসে। কিন্তু তা সত্ত্বেও তাঁদের দলের সঙ্গে ইংল্যান্ডে উড়ে যাওয়ার অনুমতি দেয়নি পিসিবি। 
তৃতীয়বারের জন্য পরীক্ষা করা হয় তাঁদের। ওই ছয় ক্রিকেটার হলেন, ফাখর জামান, মহম্মদ হাফিজ, ওয়াহাব রিয়াজ, মহম্মদ রিজওয়ান, মহম্মদ হাসনাইন, সাদাব খান। তৃতীয়বার তাঁদের করোনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসায় ইংল্যান্ডে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। তাঁরা সরাসরি উরচেস্টারশায়ারে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। ইংল্যান্ডে গিয়ে তাঁদের ফের করোনা পরীক্ষা করা হবে।
করোনা উদ্বেগকে সঙ্গে নিয়েই রবিবার ম্যাঞ্চেস্টার উড়ে যায় বাবর আজম, আজহার আলি, নাসিম শাহ, শাহিন আফ্রিদিরা। মোট ২০ জন পাকিস্তানি ক্রিকেটার আপাতত ইংল্যান্ডে গিয়েছেন। দলের সঙ্গে ১১ জন সাপোর্ট স্টাফ রয়েছেন। রবিবার বিশেষ চাটার্ড বিমানে লাহোর থেকে ম্যাঞ্চেস্টারে যায় পাকিস্তান ক্রিকেট দল। সামাজিক দূরত্বের বিধি মেনেই ইংল্যান্ডের মাটিতে পা দেন বাবর আজমরা। সেখানে নেমে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের তরফে গোটা পাকিস্তান দলের করোনা পরীক্ষা করা হয়। তারপরেই উরচেস্টারশায়ারে ১৪ দিনের জন্য কোয়ারেন্টিনে চলে যান ইমাম উল হক, সরফরাজ আহমেদরা। কোয়ারেন্টিন শেষে ১৩ জুলাই থেকে ডার্বিশায়ারে অনুশীলন শুরু করবেন বাবর আজমরা। আগস্ট–সেপ্টেম্বরে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিনটি টেস্ট ও তিনটি টি২০ ম্যাচের সিরিজ খেলবে পাকিস্তান দল।  

 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top