আজকালের প্রতিবেদন: প্রতিযোগিতা বদলায়, বাংলার ব্যর্থতার ইতিহাস একই থেকে যায়। রনজি ট্রফিতে ব্যর্থতার পর সৈয়দ মুস্তাক আলি, বিজয় হাজারে প্রতিযোগিতা ঘিরে স্বপ্ন দেখেছিলেন মনোজ তেওয়ারিরা। মুস্তাক আলি প্রতিযোগিতায় মূলপর্বের গ্রুপ লিগ থেকেই ছিটকে যেতে হয়েছিল। বিজয় হাজারে প্রতিযোগিতাতেও সেই পথেই হাঁটতে চলেছে বাংলা। প্রথম ম্যাচে মহারাষ্ট্রর কাছে ৭ উইকেটে পর্যুদস্ত। দ্বিতীয় ম্যাচে কেরলের সঙ্গে টাই। ফলে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার কাজ কঠিন হয়ে গেল বাংলার কাছে। গ্রুপ লিগের বাকি তিনটে ম্যাচ জেতার পাশাপাশি জটিল অঙ্কের সামনে পড়তে হবে।
কেরলের বিরুদ্ধে একদিকে যেমন বল হাতে উইকেট তুলে নিলেন অধিনায়ক মনোজ তেওয়ারি, তেমনি আবার ব্যাট হাতে রানও করলেন। আবার দলের হারের পেছনে তাঁর অবদানও কম নয়। বাংলার জয়ের জন্য শেষ ১৩ বলে দরকার ছিল ১৩ রান। হাতে ৩ উইকেট। স্বীকৃত ব্যাটসম্যান বলতে ক্রিজে তখন অধিনায়ক মনোজ তেওয়ারি। এরকম পরিস্থিতিতে দলকে জেতাতে ব্যর্থ মনোজ। ৯২ বলে ৭৩ রান করে অপরাজিত থাকলেন। একটু পরিকল্পনা করে খেলতে পারতেন না অধিনায়ক? দলের মধ্যেই এই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। 
টসে জিতে এদিন কেরল প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। জ্বরের জন্য অশোক দিন্দা খেলতে না পারায় বোলিং শক্তি অনেকটাই দুর্বল হয়ে পড়েছিল বাংলার। তবে সেই দুর্বলতা অনেকটাই ঢেকে দিয়েছিলেন বাকিরা। তাই ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ২৩৫ রানের বেশি তুলতে পারেনি কেরল। জলজ সাক্সেনার (অপরাজিত ১০০) সেঞ্চুরি ছাড়া আর বলার মতো রান কোনও ব্যাটসম্যানের নেই। সঞ্জু স্যামসন করেন ৩৪। বাংলার হয়ে মনোজ তেওয়ারি ২৩ রানে ২টি ও সায়ন ঘোষ ৫৬ রানে ২টি উইকেট পান। কণিষ্ক শেঠ (৬–২–১২–১) দুর্দান্ত বোলিং করেন। 
২৩৬ রানের লক্ষ্য খুব একটা কঠিন হওয়ার কথা ছিল না বাংলার কাছে। কিন্তু অধিনায়ক মনোজ ছাড়া বাকিদের দায়িত্বজ্ঞানহীন ব্যাটিং বিপর্যয় ডেকে আনে বাংলার। শ্রীবৎস গোস্বামী (২৬) কিংবা আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা অভিমন্যু ঈশ্বরন (২১) দলকে নির্ভরতা দিতে পারেননি। তিন নম্বরে নামা ঋত্বিক চ্যাটার্জি করেন ৩৪। অনুষ্টুপ মজুমদার (২৪), সুমন্ত্র গুপ্তরা (২৩) লড়াই করলেও কাজে আসেনি। সব থেকে বড় কথা, অধিনায়ক মনোজের প্রয়াস কাজে এল না টেলএন্ডারদের ব্যর্থতায়। শেষ বলে বাংলার জয়ের জন্য দরকার ১ রান। কণিষ্ক শেঠ রান আউট হয়ে যাওয়ায় বাংলার জয় অধরাই থেকে যায়। ৫০ ওভারে বাংলা তোলে ২৩৫/৮। ম্যাচ টাই হয়ে যায়। দুই দলই পেয়েছে ২ পয়েন্ট করে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top