আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ স্বামী দেওধর ট্রফির ম্যাচ খেলতে ধরমশালায় রয়েছেন। ঠিক তখনই স্ত্রীর ফেসবুক পোস্টকে ঘিরে তুমুল চাঞ্চল্য। ভারতীয় দলের পেসার মহম্মদ সামির বিরুদ্ধে একাধিক বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়ানোর অভিযোগ তুললেন তাঁর স্ত্রী হাসিন জাহান। দুই মহিলার সঙ্গে সামির চ্যাটের একটি স্ক্রিনশটও ফেসবুকে পোস্ট করেছেন হাসিন জাহান। তাঁর দাবি, দুই মহিলার সঙ্গে চ্যাট করছিলেন সামি। তবে চ্যাটটি সামির ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকেই যে করা হচ্ছিল তার প্রমাণ মেলেনি।  
উত্তরপ্রদেশে জন্ম সামির। অবশ্য বাংলার হয়েই খেলেছেন রনজি। জাতীয় দলেও সুযোগ পান বাংলা থেকেই। প্রায় বছর চারেক আগে কলকাতার মেয়ে হাসিন জাহানকে বিয়ে করেন। এককালে মডেলিং করতেন সামির স্ত্রী। একটি মেয়েও রয়েছে তাঁদের। সামির সঙ্গে স্ত্রীর সম্পর্ক যে তলানিতে এসে ঠেকেছে তা এবার প্রকাশ্যে চলে এল। নিজের ফেসবুকে রীতিমতো স্ক্রিনশট পোস্ট দিয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়ানোর অভিযোগ করেছেন হাসিন। মঙ্গলবার প্রথমে একটি মেয়ের ছবি পোস্ট করে হাসিন লেখেন, ‘‌এই মেয়েটা নাগপুরের। একে চেনেন কেউ?‌’‌ সামির স্ত্রীর কাছে একজন জানতে চান, ‘মেয়েটি কে?’ হাসিন পাল্টা লেখেন, ‘খুব তাড়াতাড়িই জানতে পারবেন।’ এরপরই ঘটে বিস্ফোরণ। ফের ওই মহিলার ছবি পোস্ট করে সামির স্ত্রী লেখেন, ‘দেখুন এই মেয়েটা কী নির্লজ্জভাবে ছেলেদের সঙ্গে কথা বলছে। আর সেই ছেলেটা আমার ক্রিকেটার স্বামী, সেলিব্রিটি মহম্মদ সামি।’ ওই মহিলার সঙ্গে সামির চ্যাটের একটি স্ক্রিনশটও ফেসবুকে পোস্ট করেন হাসিন জাহান। এরপর আরও বেশ কয়েকটি পোস্ট করেন সামির স্ত্রী। একটি পোস্টে দেখা যায়, অন্য একটি মহিলার সঙ্গে দাঁড়িয়ে রয়েছেন বাংলার ক্রিকেটার। হাসিন জাহানের দাবি, ওই মহিলাও সামির বান্ধবী। অপর একটি মহিলার ছবি পোস্ট করে হাসিন লেখেন, ‘‌ইনি করাচিতে থাকেন। যৌন কর্মী। আমার স্বামীর সঙ্গে চ্যাট করেছেন।’‌ করাচির ওই মহিলার মোবাইল নম্বরও ফেসবুকে দিয়েছেন সামির স্ত্রী। স্ত্রী মারাত্মক অভিযোগ তোলার ঠিক একদিন পর ট্যুইটারে সামি বলেছেন, আমার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে যা বলা হচ্ছে তা পুরোটাই মিথ্যে। আমাকে বদনাম করার চেষ্টা করা হচ্ছে। যাতে আমার পারফরম্যান্স নষ্ট হয়ে যায়।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top