আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আর্জেন্টিনার হয়ে অভিষেকেই লাল কার্ড দেখেছিলেন লিওনেল মেসি। বার্সিলোনায় দীর্ঘ কেরিয়ারে কখনওই লাল কার্ড দেখতে হয়নি তাঁকে। রবিবার সুপার কাপ ফাইনালে অ্যাথলেটিক ক্লাবের বিরুদ্ধে অবশ্য সেই বিরল ঘটনারই সাক্ষী থাকল ফুটবল বিশ্ব। মেজাজ হারিয়ে লাল কার্ড দেখলেন লিও মেসি। বার্সিলোনা ২–৩ ব্যবধানে হারল। ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে মেজাজ হারিয়ে বিপক্ষ খেলোয়াড়ের উপর চড়াও হলেন লিওনেল মেসি। আর সেই অপরাধের জন্যই বার্সার হয়ে ৭৫৪ তম ম্যাচে প্রথমবার লাল কার্ড দেখলেন আর্জেন্টাইন তারকা। যা দেখার পর অবাক গোটা ফুটবল দুনিয়াই।
অ্যাথলেটিক ক্লাবের বিরুদ্ধে তখন গোল শোধ করার মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে বার্সিলোনা। এমন সময়ে বল পাস করার পর মেসির গতিপথ আটকান বিপক্ষ দলের আসিয়ের ভিয়ালিব্রে। মরিয়া মেসি তৎক্ষণাৎ চাপড় মেরে ফেলে দেন তাঁকে। রেফারি গিল মানজানো প্রথমে ঘটনাটা খেয়াল করেননি। কিন্তু ভিডিও রিভিউ দেখে মেসিকে সরাসরি লাল কার্ড দেখান। শুধু তাই নয়, ওই ঘটনার ভিডিও খতিয়ে দেখবে স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন। চার ম্যাচ পর্যন্ত নির্বাসিত হতে পারেন মেসি। 
চলতি মরশুমে সময়টা একেবারেই ভাল যাচ্ছে না বার্সিলোনার। গোদের উপর বিষফোঁড়া হল সুপার কাপ ফাইনালে হার। রিয়াল মাদ্রিদ ছিটকে যাওয়ায় অনেকেই ভেবেছিলেন মরশুমের প্রথম ট্রফি ঢুকছে। অ্যান্তোনিও গ্রিজম্যান এগিয়ে দিয়েছিলেন বার্সাকে। দু’মিনিট পরেই গোল শোধ দেন অস্কার মার্কোস। দ্বিতীয়ার্ধের ৭৭ মিনিটে ফের গোল গ্রিজম্যানের। কিন্তু ৯০ মিনিটে গোল শোধ ভিয়ালিব্রের। অতিরিক্ত সময়ের খেলা শুরুর তিন মিনিটের মাথায় ইনাকি উইলিয়ামস গোল করে অ্যাথলেটিক ক্লাবকে এগিয়ে দেন। সেই গোল শোধ করতে পারেনি বার্সা।
ইতিমধ্যে মেসির ওই লাল কার্ডের ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। অনেকেই প্রিয় ফুটবল তারকার এই আচরণ দেখে অবাক হয়েছেন। উল্টোদিকে সমালোচকরাও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি আর্জেন্টাইন মহাতারকাকে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top