আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ তাঁর অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো এবং ডাচ ডিফেন্ডার ভার্জিল ভন ডিককে হারিয়ে এবারও ব্যালন ডি’‌ওর জিতলেন লিওনেল মেসি। স্থানীয় সময় সোমবার রাতে প্যারিসের আয়োজিত অনুষ্ঠানে আর্জেন্টিনার স্ট্রাইকারের হাতে পুরস্কার তুলে দিলেন ক্রোয়েশিয়ার লুকা মড্রিচ। এই নিয়ে মোট ৬বার ব্যালন ডি’‌ওর জিতলেন মেসি। আর এই জয়ের সঙ্গেই টপকে গেলেন পাঁচবার ব্যালন ডি’‌ওর জেতা সিআর সেভেনের রেকর্ড। ২০১৫–র পর আবার এবছরই ব্যালন ডি’‌ওর জিতলেন মেসি। পুরস্কার গ্রহণের পর মেসি বললেন, ‘‌১০ বছর হল, যখন প্যারিসে আমি প্রথমবার ব্যালন ডি’‌ওর জিতেছিলাম, আমার মনে আছে, আমি আমার তিন দাদার সঙ্গে এখানে এসেছিলাম। আমার ২২ বছর বয়স ছিল আর আমি কিসের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি তা আমার কাছে সম্পূর্ণ অজানা ছিল।

আমি মনে করি আমার ফুটবলকে উপভোগ করার জন্য আরও বেশ কয়েক বছর আছে। আমি নিজের বয়স সম্পর্কে সচেতন। এই সময়টাই আনন্দের কারণ আমার অবসরের সময় এগিয়ে আসছে আর সেটা খুব কঠিন হবে আমার কাছে। সব কিছুই ভালোভবেই যাচ্ছে। আমার এখনও সময় বাকি আছে কিন্তু সময় যেন উড়ে যাচ্ছে আর সব কিছুই খুব দ্রুত ঘটছে। তাই এখন আমি ফুটবল, আমার পরিবারের সঙ্গ, আমার প্রতিদ্বন্দ্বীদের মুখোমুখি হওয়াকে উপভোগ করব।’‌ জয় থেকে প্যারিসে এটা ১০ বছর হল।     
মেসিকে পুরস্কৃত করার পর টুইটারে লুকার মন্তব্য, ‘‌খেলা আর ফুটবল শুধুই জেতা নয়, এটা আপনার সতীর্থ এবং বিপক্ষ খেলোয়াড়দের সম্মান জানানোরও বিষয়।’‌ এদিন বাবাকে মঞ্চে দাঁড়িয়ে পুরস্কার নিতে দেখে উচ্ছ্বাস চেপে রাখতে পারেনি দর্শকাসনে বসা তাঁর ছোট ছেলে। আসন ছেড়ে রীতিমতো লাফাতে দেখা যায় চার বছরের মাতেও মেসিকে। 
ছবি:‌ এএনআই

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top