আজকালের প্রতিবেদন: জোর কদমে চলছে বাংলার রনজি প্রস্তুতি। এতদিন অভিমন্যু ঈশ্বরনরা নেটে ব্যাটিং করলেও সোমবার সিচুয়েশন প্র‌্যাকটিসের ওপর জোর দিলেন ‘‌ভিশন ২০২০’‌–র ব্যাটিং পরামর্শদাতা ভিভিএস লক্ষ্মণ। সিচুয়েশন প্র‌্যাকটিসে মূলত জুনিয়রদের দিকেই বেশি নজর ছিল লক্ষ্মণের।
স্পিনার ও জোরে বোলারদের বিরুদ্ধে ৪ ওভারে লক্ষ্য বেঁধে দিচ্ছিলেন লক্ষ্মণ। কোনও ব্যাটসম্যান ভুল করলেই সঙ্গে সঙ্গে উইকেটের মাঝখানেই শুধরে দিচ্ছিলেন বাংলার ব্যাটিং পরামর্শদাতা। মনোজ তেওয়ারি অবশ্য নেটেই বেশি ব্যস্ত ছিলেন। তবে সিচুয়েশন প্র‌্যাকটিসের সময় তাঁকে গ্লাভস হাতে উইকেটের পেছনেও দাঁড়াতে দেখা গেছে। অশোক দিন্দা সোমবারও অনুশীলনে যোগ দেননি। বাংলার হয়ে তাঁর চলতি মরশুমে রনজি খেলার সম্ভাবনা খুবই কম। ঘনিষ্ঠ মহলে তিনি বলেছেন, বাংলার হয়ে তিনি আর মাঠে নামতে চান না।
এদিকে, বাংলার অনূর্ধ্ব ২৩ দলের সাফল্যে উচ্ছ্বসিত বাংলার কোচ অরুণলাল। তরুণ ক্রিকেটারদের প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘‌অনূর্ধ্ব ২৩ দল দুর্দান্ত পারফরমেন্স করেছে। ওদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। ঈশান পোড়েল থেকে শুরু করে আকাশদীপ, প্রদীপ্ত প্রামাণিকরা অসাধারণ বোলিং করেছে। এই রকম ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে ওরা অদূর ভবিষ্যতে দেশের হয়ে খেলবে।’‌ অঙ্কিত মিশ্রর কথাও আলাদা করে শোনা গেছে অরুণলালের মুখে। তাঁর কথায়, ‘‌অঙ্কিত মিশ্র সুযোগ পাচ্ছিল না। ফাইনালে দুর্দান্ত পারফরমেন্স করে গেল।’‌ ব্যাটিং সমস্যা কাটাতে অনূর্ধ্ব ২৩ দলের কয়েকজন ক্রিকেটারকে রনজি প্রস্তুতি শিবিরে ডাকার পরিকল্পনা আছে বাংলার কোচের। 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top