IPL-KKR vs RCB: বিধ্বস্ত কোহলিরা, ৯ উইকেটে জয় দিয়ে শুরু কেকেআরের

আজকাল ওয়েবডেস্ক: বড় জয় দিয়ে শুরু করল কলকাতা নাইট রাইডার্স। সোমবার আবু ধাবিতে আইপিএলের দ্বিতীয় পর্বের প্রথম ম্যাচে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুকে ৯ উইকেটে হারাল নাইটরা। ৯৩ রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ১০ ওভারেই এক উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় মর্গ্যানের দল। লজ্জার হারের পর কোহলি জানান, 'পার্টনারশিপ গড়তে না পারার কারণেই হার। তবে চিন্তিত হওয়ার দরকার নেই। এক আধটা ম্যাচে খারাপ রেজাল্ট হতেই পারে।' এই হারকে 'ওয়েক আপ' কল হিসেবে দেখছেন আরসিবি অধিনায়ক। তিন উইকেট নেওয়া বরুণ চক্রবর্তীর প্রশংসা করলেন বিরাট। এদিনের জয়ে টেবিলের পাঁচ নম্বরে উঠে এল কেকেআর। 

সময়টা সত্যিই ভালো যাচ্ছে না বিরাট কোহলির। কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিরুদ্ধে আইপিএলের দ্বিতীয় পর্বের প্রথম ম্যাচে নামার আগের রাতে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর নেতৃত্ব ছাড়ার কথা জানিয়েছেন। আবু ধাবিতে ব্যাট হাতেও ব্যর্থ। মাত্র ৫ রানে প্রসিদ্ধ কৃষ্ণর বলে এলবিডব্লু হন। আরসিবির জার্সিতে নিজের ২০০ তম ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন বিরাট। কিন্তু ম্যাচটা মনে রাখতে চাইবেন না তিনি। পাঁচ বল বাকি থাকতেই মাত্র ৯২ রানে অল আউট হয়ে যায় রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। 

টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বিরাট। কিন্তু নাইট বোলারদের কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করে আরসিবির ব্যাটসম্যানরা। প্রথম বলে শূন্য রানে বোল্ড হন এবি ডি' ভিলিয়ার্স। একে একে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান শ্রীকর ভারত (২২), গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (১০), শচীন বেবি (৭), হাসারাঙ্গা (০), জ্যামিসন (৪)। আরসিবির হয়ে সর্বোচ্চ রান করেন দেবদত্ত পারিকাল (২২)। তিনটে করে উইকেট নেন আন্দ্রে রাসেল এবং বরুণ চক্রবর্তী। ফার্গুসন পান দুটো উইকেট। 

পাল্টা ব্যাট করতে নেমে দাপুটে শুরু নাইট রাইডার্সের। শুভমান গিল, ভেঙ্কটেশ আইয়ারের ব্যাটিং দেখে মনে হয়নি উইকেটে জুজু আছে। হাত খুলে চার, ছয় মারতে দেখা যায় কেকেআরের দুই ওপেনিং ব্যাটসম্যানকে। পাঁচ ওভারে ৫০ রানে পৌঁছে যায় নাইটরা। আবু ধাবিতে ছন্দ ফিরে পেলেন গিল। ৩৪ বলে ৪৮ রান করেন। একটুর জন্য হাতছাড়া হয় অর্ধশতরান। ৮২ রানে প্রথম উইকেট হারায় নাইটরা। চাহালের বলে সিরাজের হতে ধরা পড়েন গিল। অভিষেকেই নজর কাড়ে ভেঙ্কটেশ আইয়ার। ৪১ রানে অপরাজিত থাকেন নাইটদের বাঁ হাতি ওপেনার। ১০ ওভার বাকি থাকতেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় কেকেআর। গিলের রানে ফেরা কেকেআর শিবিরের কাছে বড় স্বস্তি।