আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ তাঁদের দু’‌জনের মধ্যে সম্পর্ক ঘিরে নানা গুঞ্জন রটেছিল। বলা হয়, দলের নেতা দীনেশ কার্তিকের সঙ্গে আন্দ্রে রাসেলের সম্পর্ক ভাল নয়। তার কারণে কেকেআরের পারফরম্যান্সের অবনতি ঘটেছে। সেই জন্যই আইপিএলের গত মরশুমে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি কলকাতা নাইট রাইডার্স। দুইবারের চ্যাম্পিয়নরা প্লে–অফেও নাম লেখাতে পারেনি।
দলের মধ্যে যদি অধিনায়কের সঙ্গে সেরা তারকারই রেষারেষি থাকে, তবে মাঠের পারফরম্যান্সে তার প্রভাব পড়তে বাধ্য। অনেকেই মনে করেন, কেকেআর মূলত অন্তর্কলহের কারণেই গতবার সাফল্য পায়নি। আন্দ্রে রাসেলের সঙ্গে কার্তিকের দ্বন্দ্বের বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে গতবার একটি ম্যাচের প্রেস কনফারেন্সের পর। যেখানে ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন তাঁকে লোয়ার অর্ডারে ব্যাটিংয়ে পাঠানোয়।
এরপর থেকে রাসেল–কার্তিক দ্বন্দ্ব নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। এবার বিদেশের মাঠে আইপিএলের আসর। দলে এবারও অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক। আন্দ্রে রাসেলও আছেন কেকেআর শিবিরে। তা হলে কী এবারও সেই একই সমস্যা ঘটবে? আবারও ছায়াযুদ্ধ দেখতে হবে বাকিদের?
কেকেআরের নতুন মেন্টর অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন নামী ব্যাটসম্যান ডেভিড হাসি দুশ্চিন্তার কিছু দেখছেন না। তাঁর বরং দাবি, রাসেল আর কার্তিকের মধ্যে খুবই ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক এখন। আর দলের অধিনায়কের ওপর সবার আস্থা আছে বলেই জানালেন তিনি। ডেভিড হাসি আরও জানিয়েছেন, ‘এখানে কোনও দ্বন্দ্ব বা অন্য কিছু নেই। আসলে আমার মনে হয় এখানে বরং দারুণ একটা সম্পর্ক আছে। তাঁরা খুবই ঘনিষ্ঠ। দল হিসেবে যেটা আমাদের জন্য দারুণ ব্যাপার।’
কার্তিকের নেতৃত্ব নিয়েও উচ্ছ্বসিত নাইটদের নয়া মেন্টর। হাসি বলেছেন, ‘কার্তিক খুবই অকপট ও সরল মানুষ। সে সতীর্থদের কাজে সাহায্য করে আপ্রাণ। নেতৃত্বের এটা একটা ভাল গুণ। হয়তো তাঁকে মাঝেমধ্যে কঠিন হতে হয়, কিন্তু সেটি ভালর জন্যই। দীনেশ খেলাটির সঙ্গে নিজেকে জড়িয়ে ফেলে, তাই ওর এই আচরণ দেখা যায়। যদিও এখানে মাথা গরমের কিছু নেই। আবার কারোর প্রতি তাঁর রাগও নেই। এটুকু বলতে পারি, দলে এসব সমস্যা একেবারেই নেই।’


 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top