আজকাল ওয়েবডেস্ক: ভারতীয় ক্রিকেটের সফলতম অধিনায়কের নাম মহেন্দ্র সিং ধোনি। দেশকে সবরকম আইসিসি ট্রফি দিয়েছেন তিনি। কিন্তু ধোনি নয়, অধিনায়ক হতে পারতেন যুবরাজ সিংও। ২০০৭ সালের প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তরুণ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ধোনিকে অধিনায়ক নির্বাচন করা হয়েছিল। যুবরাজ কিন্তু ভেবেছিলেন অধিনায়কের দায়িত্ব দেওয়া হবে তাঁকেই। 
সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এই কথা জানিয়েছেন ২০১১ বিশ্বকাপের ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট। ২০০৭ বিশ্বকাপে রাহুল দ্রাবিড়ের ভারতের শোচনীয় ব্যর্থতার পর পরপর দুটো বিদেশ সফর ছিল। যুবির কথায়, ’৫০ ওভারের বিশ্বকাপে হারার পর ভারতীয় ক্রিকেট খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিল। তারপর ছিল ইংল্যান্ড সফর, তারপর ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা এবং আয়ারল্যান্ড সফর। তার পর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সিনিয়ররা সবাই বিশ্রাম চাইছিলেন এবং তাঁরা কেউই ২০ ওভারের বিশ্বকাপকে গুরুত্ব দেননি। ওই টুর্নামেন্টে আমি অধিনায়ক হব বলে আশা করেছিলাম, কিন্তু ধোনির নাম ঘোষণা করে দেওয়া হয়।’
এ নিয়ে মাহির সঙ্গে সম্পর্কে কোনও আঁচড় আসেনি, বলছেন যুবি। তিনি জানিয়েছেন, ‘রাহুল দ্রাবিড় হোক কিংবা সৌরভ গাঙ্গুলি অথবা ধোনি, ভবিষ্যতে অধিনায়ক যেই হত না কেন, একজন টিম-ম্যান হওয়াটাই আসল এবং আমিও তাই করেছি।’ সেই বিশ্বকাপ এবং পরে ২০১১ সালের বিশ্বকাপে জিততে দুর্দান্ত ভূমিকা নিয়েছিলেন যুবরাজ। ধোনির ছয় মেরে বিশ্বকাপ জেতানোর সময় পিচে তাঁর পার্টনার ছিলেন তিনিই। সে দৃশ্য দেখলে তামাম ভারতীয় সমর্থকদের গায়ের লোম খাড়া করে দেয়।       
 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top