Wriddhiman Saha: কথা রাখেননি সৌরভ! দল থেকে বাদ পড়ার পর বিস্ফোরক ঋদ্ধিমান

আজকাল ওয়েবডেস্ক: শ্রীলঙ্কা সিরিজে দল থেকে বাদ পড়ার পর বিস্ফোরক ঋদ্ধিমান সাহা।

সরাসরি আঙুল তুললেন সৌরভ গাঙ্গুলির দিকে। কয়েকদিন আগে জানা গিয়েছিল রাহুল দ্রাবিড় নাকি তাঁকে বলে দিয়েছেন ভবিষ্যতে টেস্ট দলে আর তাঁর জায়গা হবে না। নতুনদের সুযোগ দিতে চাইছে ভারতীয় থিঙ্কট্যাঙ্ক। ঘুরিয়ে নাকি ঋদ্ধিকে অবসর নিতে বলেছিলেন ভারতের কোচ। সেটা শুনে সাময়িকভাবে চিন্তিত হয়ে পড়লেও প্রিয় দাদির আশ্বাসে প্রাণে বল ফিরেছিল। কিন্তু শেষপর্যন্ত হতাশই হতে হল। শ্রীলঙ্কা সিরিজে দল থেকে বাদ পড়লেন ঋদ্ধিমান সাহা। তাহলে কি কথা রাখতে পারলেন না সৌরভ? সেদিন বাংলার উইকেটকিপার ব্যাটারকে কী বলেছিলেন বোর্ড সভাপতি? ঋদ্ধিমান বলেন, 'দাদি বলেছিল, যতদিন আমি আছি তোকে কিছু ভাবতে হবে না। এই কথা শুনে স্বাভাবিকভাবেই মনোবল বেড়ে গিয়েছিল। কিন্তু এখন ঠিক উল্টো হল। আমি হতবাক। পুরো বিষয়টাতে খুবই অবাক।' 

দল থেকে বাদ পড়েছেন। এই পরিস্থিতিতে আবার টেস্ট দলে ফেরার সম্ভাবনা খুবই কম। তাই কোনও রাখঢাক না করে হাটে হাঁড়ি ভাঙলেন ঋদ্ধি। তাঁকে ঠিক কী বলেছিলেন দ্রাবিড়? ঋদ্ধি বলেন, 'আমি এখন দল থেকে বাদ পড়েছি তাই বলতে আর কোনও বাধা নেই। রাহুল ভাই বলেছিল ভবিষ্যতে আমাকে আর ভারতীয় দলের জন্য ভাবা হবে না। ঘুরিয়ে হয়ত অবসর নিতে বলেছে। তবে এটা আমার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। যতদিন ইচ্ছে হবে খেলব।' তবে হঠাৎ কেন বাদ পড়লেন তার কোনও উত্তর নেই। দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে দলে থাকলেও খেলার সুযোগ পাননি। একটা সিরিজ কী এমন পার্থক্য গড়ে দিল? আমার বয়স কি হঠাৎই বেড়ে গেল নাকি? নির্বাচকদের উদ্দেশ্যে পাল্টা প্রশ্ন বাংলার ক্রিকেটারের। সাধারণত শান্ত স্বভাবের ঋদ্ধি। মুখ ফসকে কিছু বলতে শোনা যায় না কখনও। কিন্তু এদিন তাঁর ধৈর্যের বাঁধ ভেঙেছে। দাদিও কথা রাখলেন না! এটাই হয়ত মানতে পারছেন না ঋদ্ধিমান সাহা।

আকর্ষণীয় খবর