আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ১৯ বছর হয়ে গেল। ২০০১ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি পৃথিবী ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন স্যার ডোনাল্ড ব্র‌্যাডম্যান। বয়স হয়েছিল ৯২ বছর। নিউ সাউথ ওয়েলসে জন্মেছিলেন তিনি। তাঁর সময়ের সেরা ব্যাটসম্যান। একটার পর একটা রেকর্ড করেছেন। মাত্র ৫২ টেস্টে করেছিলেন ২৯ শতরান। এরকম আরও একাধিক রেকর্ড রয়েছে তাঁর। যার কয়েকটা ভেঙে গেছে। কিন্তু এই পাঁচটি রেকর্ড কোনওদিন কেউ ভাঙতে পারবে কিনা সন্দেহ। 
ব্যাটিং গড় ৯৯.‌৯৪– টেস্টে এটাই ব্র‌্যাডম্যানের ব্যাটিং গড়। অর্থাৎ প্রায় প্রতি ইনিংসেই তিনি ১০০–র কাছাকাছি রান করেছেন। ১৯২৮ সালের নভেম্বর থেকে ১৯৪৮ সালের আগস্ট অবধি তিনি অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলেছেন। তারমধ্যে দুটি অ্যাসেজে তিনি হেরেছেন। 
৫০২৮ রান– ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে মাত্র ৩৭ টেস্টে ৫০২৮ রান করেছেন ব্র‌্যাডম্যান। কোনও একটি প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে যা সর্বোচ্চ রান এখনও। তালিকায় দুই ও তিনে আছেন ইংল্যান্ডের জ্যাক হবস ও ভারতের শচীন তেন্ডুলকার। হবস অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৩৬৩৬ রান করেছেন। আর শচীন তেন্ডুলকার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৩৬৩০ রান করেছেন। বর্তমান ক্রিকেটারদের মধ্যে একমাত্র স্টিভ স্মিথের রয়েছে ইংরেজদের বিরুদ্ধে ২৮০০ রান। আগামী তিনটে অ্যাসেজের প্রতিটিতে ৭০০ রান করে করলে তিনি হয়ত ভাঙতে পারবেন ডনের এই রেকর্ড।
১৯ শতরান– কোনও একটি প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে টেস্টে সর্বাধিক শতরানের রেকর্ড আজও ডনের দখলে। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিনি করেছেন ১৯ শতরান। তালিকায় দুইয়ে আছেন ভারতের সুনীল গাভাসকার। তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১৩ শতরান করেছিলেন। আর তিনে স্টিভ স্মিথ। তিনি ১১ শতরান করেছেন ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে। অ্যাসেজে আরও ৯টি শতরান করলে তিনি ভাঙতে পারবেন ব্র‌্যাডম্যানের এই রেকর্ড। 
গড় ৭৪.‌৫– তাঁর সময়ে প্রতিটি টেস্ট খেলিয়ে দলের বিপক্ষে এটাই ব্র‌্যাডম্যানের ব্যাটিং গড়। কিংবা তাঁর বেশি। যে রেকর্ড আজও কেউ ভাঙতে পারেননি। 
দ্রুত থেকে দ্রুততম– দ্রুতগতিতে রান করেছেন তিনি। টেস্টে তাঁর রান ৬৯৯৬। প্রথম ১০০০ রান করেন ১৩ ইনিংসে। পরের ১০০০ রান আসে মাত্র ৯ ইনিংসে। তার পরের ১০০০ রান আসে ১১ ইনিংসে। তার পরের ১০০০ রান আসে ১৫ ইনিংসে। পরবর্তী ১০০০ রান আসে মাত্র ৮ ইনিংসে। পরবর্তী ১০০০ রান আসে ১২ ইনিংসে। অর্থাৎ ৬০০০ রান করতে ব্র‌্যাডম্যান নেন ৬৮ ইনিংস। এই ধারাবাহিকতা আর কেউ দেখাতে পারেননি। 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top