Portugal-Ghana: পাঁচ বিশ্বকাপে গোলের রেকর্ড রোনাল্ডোর, জয় দিয়ে শুরু পর্তুগালের

পর্তুগাল - (রোনাল্ডো-পেনাল্টি, ফেলিক্স, লিয়াও) 

ঘানা - (আয়ু, বুকারি)

আজকাল ওয়েবডেস্ক: মেসি পারেনি। পারলেন রোনাল্ডো।‌ গোল করার পাশাপাশি জেতালেন দলকে। কাকতালীয়ভাবে আধুনিক ফুটবলের দুই মহাতারকার শেষ বিশ্বকাপ শুরু হয়েছিল অনেকটা একইভাবে। দু'জনেই প্রথম ম্যাচে পেনাল্টি থেকে গোল করেন। কিন্তু নব্বই মিনিটের শেষে হাসলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো।‌ বৃহস্পতিবার রাতে দোহার স্টেডিয়াম ৯৭৪ এ ঘানাকে ৩-২ গোলে হারাল পর্তুগাল। শেষ বিশ্বকাপ। তাই মাঠে নেমেই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন রোনাল্ডো। পঞ্চম বিশ্বকাপ খেলতে নেমেই বারবার স্টেডিয়ামের চারিদিকে দেখেন পর্তুগিজ তারকা। জাতীয় সঙ্গীতের সময় চোখের কোণে জল ছলছল করছিল। কয়েকদিন ধরে তাঁর ওপর দিয়ে ঝড় বয়ে গিয়েছে। তাই ইস্পাতকঠিন রোনাল্ডো কয়েক মুহূর্তের জন্য হলেও আবেগের স্রোতে ভাসলেন। কিন্তু মরুদেশে যাবতীয় বিতর্কের ঝড় থামিয়ে আবার চেনা ছন্দে পর্তুগিজ তারকা। মাঠে নামলেন, গোল করলেন, ম্যাচ জিতলেন। 

বিশ্বরেকর্ডের হাতছানি ছিল। একটা গোল করলেই নয়া নজির। একমাত্র ফুটবলার হিসেবে পাঁচটি বিশ্বকাপে গোল করার রেকর্ড। প্রথম থেকেই বলের দখল ছিল পর্তুগালের পায়ে। দুই উইং দিয়ে আক্রমণে উঠছিলেন ব্রুনো ফার্নান্দেজ এবং জোয়াও ফেলিক্স। প্রথম ৪৫ মিনিট আধিপত্য ছিল পর্তুগালের। রোনাল্ডোর প্রথম টাচ ১০ মিনিটের মাথায়। সামনে ঘানার গোলকিপারকে একা পেয়েও গোলে ঠেলতে পারেননি। তার তিন মিনিটের মধ্যে সিআরসেভেনের হেড লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

ম্যাচের ৩১ মিনিটে গোল করেন রোনাল্ডো। ফেলিক্সের থেকে বল পেয়ে টার্ন নিয়ে ডান পায়ের শট গোলে রাখেন পর্তুগিজ তারকা। কিন্তু ফাউলের জন্য গোল বাতিল করেন রেফারি। প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্যভাবে।

যত কাণ্ড দ্বিতীয়ার্ধে। আগের বিশ্বকাপে উইংয়ে খেলেছিলেন। কিন্তু এদিন সেন্টার ফরোয়ার্ড হিসেবে শুরু করেন। যদিও মাঝেমধ্যে জোয়াও ফেলিক্সের সঙ্গে জায়গা বদলাতে দেখা যায় রোনাল্ডোকে। ম্যাচের ৬২ মিনিটে বক্সের মধ্যে পর্তুগিজ তারকাকে ফাউল করেন সালিসু। পেনাল্টি দিতে দ্বিধা করেননি রেফারি। ৬৫ মিনিটে স্পট কিক থেকে পর্তুগালকে এগিয়ে দেন রোনাল্ডো। তারপরই সেই ট্রেডমার্ক সেলিব্রেশন। কর্নার ফ্লাগের কাছে গিয়ে দু'হাত শূন্যে তুলে লাফ। দীর্ঘ ফুটবল জীবনে পেনাল্টি থেকে একাধিক গোল করেছেন। কিন্তু এদিন পেনাল্টি মারার আগে বিভিন্ন অভিব্যক্তি দেখা গেল মহাতারকার চোখে-মুখে। শেষপর্যন্ত চোয়াল শক্ত রেখে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন। 

ম্যাচের ৭৩ মিনিটে সমতা ফেরায় আন্দ্রে আয়ু। কিন্তু ঘানা খেলার দখল নেওয়ার আগেই মাত্র দুই মিনিটের ব্যবধানে জোড়া গোল পর্তুগালের। ম্যাচের ৭৮ মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন জোয়াও ফেলিক্স। মাঝমাঠ থেকে ব্রুনো ফার্নান্দেজের বাড়ানো বল ধরে বেশ কিছুটা জমি কভার করে ডান পায়ের শটে নিখুঁত প্লেসিং ফেলিক্সের। তার দু'মিনিটের মধ্যে ৩-১ করেন রাফায়েল লিয়াও। পরিবর্ত হিসেবে নেমে মাত্র ২ মিনিট ৪২ সেকেন্ডের মধ্যে গোল করেন সুপারসাব। রোনাল্ডোকে তুলে নেওয়ার দু'মিনিটের মাথায় ব্যবধান কমায় ঘানা। ৮৯ মিনিটে গোল করে খেলা আবার জমিয়ে দেন বুকারি। বেঞ্চে মাথায় হাত রোনাল্ডোর। অ্যাডেড টাইমের একেবারে অন্তিমলগ্নে গোলের নিশ্চিত সুযোগ মিস করে ঘানা। 

আকর্ষণীয় খবর