আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ হৃদরোগে আক্রান্ত কপিল দেব। তাঁকে ভর্তি করা হয়েছে দিল্লির হাসপাতালে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করা হয়েছে বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের। হাসপাতাল সূত্রে আরও বলা হয়েছে, কপিল এখন বিপন্মুক্ত এবং তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। কপিলের শারীরিক পরিস্থিতির উপর নজর রাখছেন চিকিৎসকরা। সূত্রের খবর, দীর্ঘদিন ধরেই ডায়াবেটিসে ভুগছিলেন তিনি।
কপিলের অসুস্থতার খবর প্রথম জানা যায় টুইটারে। টীনা ঠাকরে নামে এক ক্রীড়া সাংবাদিক তাঁর অসুস্থতার কথা জানিয়ে প্রথম টুইট করেন। সেই খবরই এখন গোটা দেশের কাছে উদ্বেগের কারণ হয়ে উঠেছে। বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক কেমন আছেন, তা জানতে উদ্বিগ্ন সকলেই। ক্রীড়া জগত থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ, সকলেই তাঁর শারীরিক সুস্থতা কামনা করছেন।
১৯৭৮ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টেস্টে অভিষেক হয়েছিল হরিয়ানা হ্যারিকেনের। ১৯৮৩ সালে লর্ডসে ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম চমকপ্রদ ঘটনা ঘটিয়েছিল কপিলের নেতৃত্বাধীন ভারত। মাত্র ১৮৩ রানের পুঁজি নিয়ে সেই সময়ের ভয়ঙ্কর ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে প্রথম বার বিশ্বকাপ (প্রুডেনশিয়াল কাপ) জিতেছিল ভারত। ওই টুর্নামেন্টেই জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে ১৭৫ রানের ঝকঝকে ইনিংসও খেলেন কপিল। ১৩১টি টেস্টে মোট ৪৩৪টি উইকেট রয়েছে কপিলের ঝুলিতে। ২২৫টি একদিনের ম্যাচে ২৫৩টি উইকেটও পেয়েছেন তিনি। টেস্টে এই অলরাউন্ডার করেছেন ৫ হাজার ২৫৮ রান। একদিনের ক্রিকেটে তাঁর রয়েছে ৩ হাজার ৭৮৩ রান।
দেশের জার্সিতে শুধু ক্রিকেটই নয়, প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক নেমেছেন গলফের মাঠেও। তাঁর অধিনায়কত্বেই প্রথম বিশ্বকাপের স্বাদ পেয়েছিল দেশবাসী। গলফেও ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেছেন কপিল।

 


 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top