আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ১১৭ দিন পর ফিরেছে ক্রিকেট। সাদামটনে টেস্ট খেলতে নেমেছে ইংল্যান্ড–ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর ক্রিকেট ফেরায় কিছুটা মনের শান্তি খুঁজে পেয়েছেন ক্রিকেট সমর্থকরা। যদিও মাঠে দর্শকদের খেলা দেখার উপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। ফাঁকা গ্যালারি। ক্রিকেটাররা অনুপ্রেরণা পাবেন কী করে! তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছিল। কিন্তু এই মুহূর্তে সারা বিশ্বের পরিস্থিতি বিচার করে এই সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়া ছাড়া উপায় ছিল না। কারণ জমায়েত করে খেলা দেখলে এই সময় করোনার সংক্রমণের আশঙ্কা বাড়তে পারে। মহামারীর এই কঠিন সময় একের পর এক উদাহরণ সৃষ্টি করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সবার আগে অনুশীলন শুরু করেছিল তারা। তাছাড়া ইংল্যান্ড বোর্ডের এক ডাকে সাড়া দিয়েছিল তারা। টেস্ট সিরিজ খেলতে হাজির হয়েছিল ইংল্যান্ডে।
মহামারীর এই কঠিন সময় আরও এক বড় সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আগামী মাসেই তাদের দেশের জনপ্রিয় ঘরোয়া ফ্র্যাঞ্চাইজি টি২০ ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ শুরু করবে তারা। মহামারীর এই কঠিন সময়ে আইপিএল আয়োজনের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখনও নিতে পারেনি বিসিসিআই। পাকিস্তান সুপার লিগ বন্ধ। বিভিন্ন দেশের অন্যান্য ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ আয়োজনের কোনও সম্ভাবনা নেই। তবে এরই মাঝে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলল। 
গত মাসেই সিপিএল–এর প্লেয়ার্স ড্রাফট হয়েছে। জানা যাচ্ছে ১৮ আগস্ট থেকে এই টুর্নামেন্ট শুরু হবে। ফাইনাল ২০ সেপ্টেম্বর। তবে এবার এই টুর্নামেন্ট আয়োজিত হবে শুধুমাত্র ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোতে। ইতিমধ্যে সেখানকার প্রশাসন টুর্নামেন্ট আয়োজনের ছাড়পত্র দিয়েছে। তবে টুর্নামেন্ট শুরুর আগে যাবতীয় সাবধানতা অবলম্বন করা হবে বলে জানানো হয়েছে। সিপিএল কর্তৃপক্ষকে এই নিয়ে কিছু শর্তের কথা জানিয়েছে সেখানকার প্রশাসন। টুর্নামেন্টের সঙ্গে জড়িত সবাইকে ত্রিনিদাদ পৌঁছনোর কিছুদিন আগে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। ত্রিনিদাদ পৌঁছনোর পরও একই নিয়ম পালন করতে হবে।
রশিদ খান, ক্রিস লিন, সোহেল তনবীর, মহম্মদ নবি, মার্কাস স্টোইনিস, রস টেলর, কার্লোস ব্রেথওয়েটের মতো তারকারা এই লিগ খেলবেন। ভারতীয়দর মধ্যে আছেন শুধু প্রবীণ তাম্বে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top