আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিপাকে জনপ্রিয় ক্রিকেটার যুবরাজ সিং। জাতিবিদ্বেষী মন্তব্য করার অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে পুলিশে দায়ের হল অভিযোগ। অভিযোগ দায়ের করলেন রজত কালসান নামে এক আইনজীবী। দলিত সমাজের বিরুদ্ধে বাঁকা মন্তব্য করেছেন যুবরাজ সিং। সেই কারণেই হাঁসিতে স্থানীয় থানায় এই অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। লকডাউনের মধ্যে অন্যান্য অনেক সেলেব্রিটির মতো যুবরাজও একটি ভিডিও চ্যাটে আড্ডায় মেতেছিলেন ক্রিকেটার রোহিত শর্মার সঙ্গে।সেখানেই তিনি দলের সতীর্থ যজুবেন্দ্র চাহাল ও কুলদীপ যাদবকে নিয়ে জাতিবিদ্বেষী মন্তব্য করেন। তারপর সেই মন্তব্য নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিস্তর জলঘোলা হয়। টুইটারে অনেকেই যুবরাজকে ক্ষমা চাইতে বলেছেন। এবার সেই মন্তব্যের জন্যই দলিত অধিকার কর্মী ও আইনজীবী রজত কালসান তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলেন। 
পাশাপাশি তিনি কাঠগড়ায় তুলেছেন ভারতীয় দলের সহ–অধিনায়ক রোহিত শর্মাকেও। রোহিতের বিরুদ্ধে তাঁর অভিযোগ, ‘সেদিন যুবরাজের সঙ্গে ওই ভিডিও চ্যাটে আড্ডা দিচ্ছিলেন রোহিত। এমন জাতিবিদ্বেষী মন্তব্য করা সত্ত্বেও কোনও প্রতিবাদ করেননি ভারতীয় দলের সহ–অধিনায়ক।’‌ মজার ছলে ঘরোয়া একটা আড্ডা থেকেই বিতর্কের সূত্রপাত! এপ্রিলের শেষ দিকে ইনস্টাগ্রামে একটি লাইভ সেশনে জমিয়ে আড্ডা দিচ্ছিলেন যুবরাজ সিং এবং রোহিত শর্মা। সেখানে হঠাৎই উঠে আসে ভারতীয় স্পিনার যুজবেন্দ্র চাহলের প্রসঙ্গ। চাহল টিভি থেকে শুরু করে আরও যেসব মজাদার ভিডিও করে চাহাল সোশ্যাল মিডিয়ায় সব সময়ই আলোচনার কেন্দ্রে থাকেন, তা নিয়ে হাসি–ঠাট্টা করছিলেন যুবি এবং রোহিত। তখনই বিতর্কিত মন্তব্যটি করেন যুবরাজ।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top