আজকালের প্রতিবেদন: পাতিয়ালার ধ্রুব পাণ্ডব স্টেডিয়ামে ঘূর্ণি উইকেটের ইঙ্গিত ছিলই। সেই মতো প্রথম একাদশে তিন নয়, বুধবার ম্যাচের সকালে চার স্পিনার রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলা। এমন উইকেটে যে কোনও দলই টস জিতে শুরুতে ব্যাট করে নিতে চায়। টস ভাগ্য সহায় হওয়ায় সেটাও করেছিল বাংলা। কিন্তু ব্যাটসম্যানদের চূড়ান্ত ব্যর্থতায় প্রথম দিনের শেষে তারা ব্যাকফুটে।
পাঞ্জাবের চায়নাম্যান বোলার বিনয় চৌধুরির দাপটে বাংলা অলআউট মাত্র ১৩৮ রানে। যার মধ্যে মনোজ তেওয়ারি একাই অপরাজিত ৭৩। অর্থাৎ দলের বাকি ১০ জনের অবদান সাকুল্যে ৬৫ রান। পাঁচ ব্যাটসম্যান খাতাই খুলতে পারেননি। যে তালিকায় অধিনায়ক অভিমন্যু ঈশ্বরন, অনুষ্টুপ মজুমদার, শাহবাজ আহমেদের মতো গুরুত্বপূর্ণ ব্যাটসম্যান আছেন। পঞ্চম উইকেটে মনোজ–শ্রীবৎসর ৪৭ রানের পার্টনারশিপ ছাড়া পাঞ্জাব বোলারদের বিরুদ্ধে কোনও প্রতিরোধই গড়ে তোলা যায়নি। ইনিংসের ৩৯তম ওভারে শ্রীবৎসের পাশাপাশি অনুষ্টুপ ও শাহবাজকে তুলে নিয়ে বাংলা ব্যাটিংয়ের মেরুদণ্ডটাই ভেঙে দেন বিনয়। শেষ তিন ব্যাটসম্যানকে নিয়ে দলের স্কোরবোর্ডে ৩৪ রানের বেশি যোগ করতে পারেননি মনোজ।
ব্যাট করতে নেমে দিনের শেষে পাঞ্জাবের স্কোর ৯৩/‌৩। বাংলার থেকে এখনও ৪৫ রানে পিছিয়ে। ব্যাটিং ব্যর্থতার কথা কার্যত স্বীকার করে নিয়েছেন বাংলার কোচ অরুণলালও। তাঁর কথায়, ‘‌আমরা ব্যাট করতে পারিনি, সেটা অস্বীকার করার কোনও জায়গা নেই। মনোজ ছাড়া টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা কিছুই করতে পারেনি। মনোজের জন্যই রানটা এই জায়গায় পৌঁছেছে। তবে প্রথমদিন সকালে উইকেটে আর্দ্রতা ছিল। সেটা কিছুটা হলেও ম্যাচে প্রভাব ফেলছিল। শেষের দিকে উইকেটে বল ঘুরতে শুরু করেছে। আশা করি দ্বিতীয় দিন থেকে বল আরও ঘুরবে। ম্যাচ এখন যে পরিস্থিতিতে তাতে সরাসরি হার–জিতের ফয়সালা হবে। প্রথম ইনিংসে ওদের ২০০ রানের মধ্যে গুটিয়ে দিতে পারলেই ম্যাচে ফেরা যাবে।’‌
পাতিয়ালার ‘‌চর্চিত’‌ উইকেটে ব্যাটিং যে মোটেও সহজ ছিল না, তা স্বীকার করে নিয়েছেন দিনের নায়ক মনোজ। তাঁর কথায়, ‘‌উইকেট নিঃসন্দেহে চ্যালেঞ্জিং। সকালে ওদের পেসাররা ভাল বল করেছে। আমাদের দু–একটা ভাল পার্টনারশিপ হলে স্কোরটা ভাল জায়গায় চলে যেত। তবে এখনও অনেক খেলা বাকি।’‌ সঙ্গে যুক্তি দিয়েছেন, ‘‌আজ শেষ বলে উইকেট পড়েছে। ফলে সকালে আমাদের নতুন ব্যাটসম্যান নামবে। আমাদের হাতে এখনও ৪৫ রান রয়েছে। ফলে প্রথম ঘণ্টাটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’‌
স্কোর
বাংলা (‌প্রথম ইনিংস)‌:‌ কৌশিক এলবিডব্লু ব বলতেজ ৭, অভিমন্যু ব বলতেজ ০, রামন ক রমনদীপ ব কিষাণ ১৪, অর্ণব ব বিনয় ১১, মনোজ অপরাজিত ৭৩, শ্রীবৎস এলবিডব্লু ব বিনয় ১৯, অনুষ্টুপ ক আনমোল ব বিনয় ০, শাহবাজ ব বিনয় ০, ঋত্বিক ক আনমোল ব বলতেজ ২, আকাশ দীপ ক শরদ ব বিনয় ০, রমেশ প্রসাদ ক রোহন ব বিনয় ০, অতিরিক্ত ১২। মোট (‌৪৯ ওভারে, ১০ উইকেটে)‌ ১৩৮।
উইকেট পতন:‌ ১/‌৮, ২/‌২১, ৩/‌২৯, ৪/‌৫৭, ৫/‌১০৪, ৬‌/‌১০৪, ৭/‌১০৪, ৮/‌১১৯, ৯/‌১৩২, ১০/‌১৩৮।
বোলিং:‌ সিদ্ধার্থ কাউল ১১–৪–২৫–০, বলতেজ সিং ১৩–৬–১৬–৩, কিষাণ আলং ৮–০–৩২–১, বিনয় চৌধুরি ১৭–৩–৫৪–৬।
পাঞ্জাব (‌প্রথম ইনিংস)‌:‌ রোহন ক রামন ব আকাশ দীপ ৪৮, অভিজিৎ ব শাহবাজ ১৪, শরদ ক রামন ব শাহবাজ ১, মনদীপ অপরাজিত ২৯, অতিরিক্ত ১। মোট (‌৩৮.‌২ ওভারে, ৩ উইকেটে)‌ ৯৩।
উইকেট পতন:‌ ১/‌২৯, ২/‌৪৫, ৩/‌৯৩।
বোলিং:‌ আকাশ দীপ ৪.‌২–০–১৩–১, রমেশ প্রসাদ ১১–১–২৯–০, শাহবাজ ১১–২–২৮–২, অর্ণব ৭–২–১১–০, ঋত্বিক ৫–০–১২–০।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top