আজকালের প্রতিবেদন: পাতিয়ালার ধ্রুব পাণ্ডব স্টেডিয়ামের বাইশ গজ রীতিমতো কুখ্যাত হয়ে উঠেছে। বলতে গেলে স্পিনারদের স্বর্গরাজ্য। প্রথম ঘণ্টা থেকেই বল ঘোরার জোরালো সম্ভাবনা। ঘূর্ণির ঘেরাটোপে ৬ পয়েন্টের লক্ষ্যে নামছে বাংলা। তিন স্পিনার নিয়েই মাঠে নামার পরিকল্পনা বাংলা শিবিরের। অভিষেক হতে পারে বাঁ হাতি স্পিনার রমেশ প্রসাদের।
পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে রনজি ট্রফির গ্রুপ লিগের শেষ ম্যাচ খেলতে নামছে বাংলা। দুই দলের কাছেই খুবই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। এই মুহূর্তে ৭ ম্যাচে ২৬ পয়েন্ট পেয়ে লিগ টেবিলে চার নম্বরে রয়েছে বাংলা। ২৪ পয়েন্টে ৬ নম্বরে পাঞ্জাব। নক আউটের ছাড়পত্র পেতে গেলে বাংলাকে কমপক্ষে ৩ পয়েন্ট পেতেই হবে। পাঞ্জাবের সামনে জেতা ছাড়া রাস্তা নেই। উইকেটের যা হাল ম্যাচের ফয়সালা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। পাতিয়ালায় খবর নিয়ে জানা গেছে, স্পিনিং ট্র‌্যাক হলেও বাইশ গজ একেবারে খেলার অযোগ্য নয়।  
কদিন আগেই পাঞ্জাব–অন্ধ্রপ্রদেশ ম্যাচে ধ্রুব পাণ্ডব স্টেডিয়ামের বাইশ গজ নিয়ে বিতর্ক দেখা দিয়েছিল। অন্ধ্রপ্রদেশ শিবির থেকে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের কাছে উইকেট নিয়ে অভিযোগ জানানো হয়। ড্যামেজ কন্ট্রোলের জন্য বোর্ড তড়িঘড়ি উত্তরাঞ্চলের প্রধান কিউরেটর সুনীল চৌহানকে পাঠিয়েছে। তাঁর পক্ষে তো রাতারাতি বাইশ গজের চরিত্র বদলে দেওয়া সম্ভব নয়। উইকেটে বল ঘুরবেই। তবে দু’‌দিনে ম্যাচ শেষ হওয়ার মতো উইকেট নয়।
পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে শাহবাজ আমেদ ও অর্ণব নন্দীর সঙ্গে তরুণ বাঁহাতি স্পিনার রমেশ প্রসাদকে খেলানোর পরিকল্পনা রয়েছে বাংলা শিবিরের। ঋত্বিক চ্যাটার্জির কথা মাথায় থাকলেও তাঁর খেলার সম্ভাবনা কম। দুই পেসার আকাশ দীপ ও মুকেশ কুমার। সেক্ষেত্রে নীলকন্ঠ দাসকে প্রথম একাদশের বাইরে বসতে হবে। ব্যাটিংয়ে পরিবর্তনের কোনও সম্ভাবনা নেই। ঘূর্ণি উইকেটে ব্যাটসম্যানদের বাড়তি দায়িত্ব নেওয়ার কথা বলেছেন বাংলার কোচ।
জেতার ব্যাপারে আশাবাদী কোচ অরুণলাল। পাতিয়ালা থেকে ফোনে তিনি বলেন, ‘‌ক্রিকেটারদের আত্মবিশ্বাস তুঙ্গে রয়েছে। আগের ম্যাচ খুব খারাপ অবস্থা থেকে জিতেছি। ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হবে। সবাইকে নিজের নিজের দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়েছি। যদি ক্রিকেটাররা নিজেদের দায়িত্ব পালন করে জিততে অসুবিধা হবে না।
শুধু বোলারদের নয়, ব্যাটসম্যানদেরও বাড়তি দায়িত্ব নিতে হবে।’‌ আতঙ্ক থাকলেও বাংলা শিবির অবশ্য উইকেট নিয়ে খুব বেশি চিন্তিত নয়। অরুণলাল বলেন, ‘‌প্রথম দিন থেকেই বল ঘুরবে। তবে খেলার অযোগ্য বলা যাবে না। মাঠে নামার পর বুঝতে পারব বাইশ গজ কতটা খারাপ আচরণ করবে। উইকেট নিয়ে বেশি ভেবে লাভ নেই। ওদেরও তো এই উইকেটে খেলতে হবে। আশা করছি ম্যাচে ফয়সালা হবে।’‌ আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে থাকা বাংলা শিবির ৬ পয়েন্টের স্বপ্ন দেখছে।(ফাইল ছবি)

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top