আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শ্রমিকদের চাপিয়ে ট্রেন চলেছে উত্তরপ্রদেশের গোরখপুর। জল নেই। খাবার নেই। তার ওপর গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা সওয়ারিদের। বড়রা তবু খিদে, তেষ্টা সহ্য করে বসে আছে। বাড়ি যে ফিরতেই হবে। কিন্তু শিশু!‌ তারা যে এখনও খিদে, তেষ্টা দমাতে শেখেনি।
এর মধ্যেই ভোপাল স্টেশনে কিছুক্ষণের জন্য থেমেছে ট্রেন। ৪ মাসের শিশুর জন্য একটু দুধ খুঁজছিলেন সাফিয়া হাসমি। নাহ্‌!‌ পাননি। আর কেনার মতো সামর্থ্যও নেই। এতক্ষণ জলে বিস্কুট গুলে খাওয়াচ্ছিলেন একরত্তিকে। কিন্তু কতক্ষণ?‌ অগত্যা তাই স্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকা রেল পুলিশের কনস্টেবল ইন্দর যাদবকে অনুরোধ করেছিলেন। বাচ্চাটার জন্য যদি একটু দুধ এনে দেন! দুধ নিয়ে ফেরার আগেই ট্রেন ছেড়ে দেয়। আশা ছেড়ে দেন সাফিয়াও। তবে ছাড়েননি সেই কনস্টেবল। 
স্টেশন থেকে এক প্যাকেট দুধ কিনে যাদব দেখেন ট্রেন ছেড়ে দিয়েছে। এক কাঁধে রাইফেল আর এক হাতে দুধের প্যাকেট নিয়ে সাফিয়ার কামরা লক্ষ্য করে ট্রেনের পাশাপাশি ছুট দেন। এর পর লক্ষ্যে পৌঁছে শিশুর মায়ের হাতে তুলে দেন দুধের প্যাকেট। গোটা ঘটনা ধরা পড়ে স্টেশনে রাখা সিসিটিভিতে। এখন সেই ফুটেজ ভাইরাল।
ঘরে ফিরে আরপিএফ কনস্টেবল ইন্দর যাদবকে ধন্যবাদ জানান শিশুটির বাবা–মা। রেলমন্ত্রী পীযুষ গয়াল টুইট করে অভিনন্দন জানিয়েছেন যাদবকে। নগদ পুরস্কার ঘোষণা করেছে রেল। উচ্ছ্বসিত নেটিজেনরাও।    

 

 

জনপ্রিয়

Back To Top