আজকাল ওয়েবডেস্ক: দেশজুড়ে লকডাউন। বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়েছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা।‌ তাঁদের ইফতার পালনের জন্য নিজেদের একটি হলের দরজা খুলে দিয়েছিল বৈষ্ণোদেবী ট্রাস্ট। দিন কয়েক আগের ঘটনা। এবার মানবিকতার আর এক দিক তুলে ধরল ভিওয়াণ্ডির এক মসজিদ। সেখানকার হলেই গড়ে উঠল কোভিড রোগীদের চিকিৎসা কেন্দ্র। 
আক্রান্তের তালিকায় দেশে সবার ওপর মহারাষ্ট্র। সেই রাজ্যেরই ভিওয়াণ্ডিতে মৃত্যুর হার দেশে সর্বাধিক। ৫.‌৩ শতাংশ। জনবহুল এই জেলায় আবারও ১৫ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছে পুরসভা। তাতেও সংক্রমণ ঠেকানো যায়নি। প্রায় কোনও হাসপাতালেই শয্যা নেই। রোগীর ভিড়। জরুরি পরিষেবা পর্যন্ত মিলছে না। 
এই পরিস্থিতেতে এগিয়ে এল জামাত–ই–ইসলামি হিন্দের স্থানীয় শাখা এবং শান্তিনগর ট্রাস্ট। ১৮ জুন শহরের মক্কাহ্‌ মসজিদে কোভিড রোগীদের চিকিৎসার জন্য অস্থায়ী কেন্দ্র গড়ে তোলে। যাঁরা হাসপাতালে জায়গা পাবেন না, তাঁদের এখানে রাখা হবে। অবশ্যই সঙ্কটজনক নয়, এমন রোগী। মসজিদের হলে শয্যা এবং অক্সিজেনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। সেসবের জন্য রোগীকে কোনও টাকা দিতে হবে না। সারা দিন ছ’‌ জন স্বাস্থ্যকর্মী রোগীদের খেয়াল রাখেন। দিনে দু’‌জন চিকিৎসক এসে রোগীদের দেখে যান। 
জামাত–ই–ইসলামির ভিওয়াণ্ডির সদস্য আওসাফ আহমেদ ফালাহি জানালেন, জেলার হাসপাতালগুলোর ওপর চাপ কমাতেই এই উদ্যোগ। স্বেচ্ছাসেবীরা রোগীদের বাড়ি বিনামূল্যে অক্সিজেন পৌঁছনোরও কাজ করছেন বলে জানা গেছে। এসব দেখে নেটিজেনদের প্রশ্ন, দেশের বাকি ধর্মস্থানও কি এগিয়ে আসতে পারে না এভাবে!‌

জনপ্রিয়

Back To Top