আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ যাকে দেখে সবাই ভয় পায় এবার তাকেই বাঁচালেন এক ব্যক্তি। কারণ তিনি বুঝতে পেরেছিলেন সে আহত। সাহায্য চায়। তারই খোঁজ করতে ভুল করে ঢুকে পড়েছে স্কুলে। কিন্তু তা বলে সাহায্য করা হবে না?‌ স্কুলে আতঙ্কিত সবাইকে চমকে দিয়ে সেই আহত, জখম সাপের চিকিৎসা ও সেবা করে সুস্থ করে ছেড়ে দিলেন আয়কর দপ্তরের আধিকারিক শের সিং। 
এমনই বিরল ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে। সেখানের এক স্কুলে একটি সাপ ঢুকে পড়ে। যা দেখে চমকে ওঠে ছাত্রছাত্রী থেকে শিক্ষক–শিক্ষিকারা। সাপটিকে মেরে বাইরে ফেলে দিতে যখন উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে তখন ওই পথ দিয়ে যাচ্ছিলেন এই আয়কর আধিকারিক। তিনি তৎক্ষনাৎ সবাইকে নিরস্ত করেন। আসলে তিনি বন্যপ্রাণী ভালবাসেন। তাদের নিয়ে কাজও করেন। তাই সাপ চিনতে ভুল হয়নি তাঁর। তিনি বলেন, ‘‌সাধারণত সাপ দেখলেই ধরে নেওয়া হয় সে বিষাক্ত জীব। তাই তাকে মেরে ফেলার প্রবণতা দেখা যায়। কিন্তু আমি বুঝেছিলাম এই সাপ বিষধর নয়। কাউকে কামড়াবে না। বরং সাপটি জখম। তাই হাতে তুলে নিয়ে সেবা করলাম।’‌ 
কেমন করে সাপটিকে সুস্থ করা হল?‌ আয়কর আধিকারিক তথা বন্যপশু প্রেমিক শের সিং জানান, ‘‌আমি বুঝেছিলাম সাপটিকে বিরক্ত না করলে কামড়াবে না। এটা সেই প্রজাতিরই সাপ। তাই একটা স্ট্র নিয়ে সাপটির পেটে জল পৌঁছে দিলাম। জল দিতেই সাপটি বমি করতে শুরু করল। সাপের পেটের ভেতরে থাকা ক্ষতিকারক জিনিস বেরিয়ে আসতেই সাপটি স্বাভাবিক হয়ে পড়ল। তারপর তাকে ঠাণ্ডা জলের গামলায় করে বাইরে ছেড়ে দিলাম।’‌ 

ছবি—এএনআই।

জনপ্রিয়

Back To Top