আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌‌ বিপাকে পেটিএম, মোবিকুইক, গুগল তেজ এবং কেন্দ্রের নিজস্ব ভীম অ্যাপও। না, ডিজিটাল পেমেন্টের জন্য জনপ্রিয় অ্যাপগুলি বন্ধ হচ্ছে না। তবে এদেরকে টেক্কা দিতে আসছে হোয়াটসঅ্যাপ। খুব শিগগিরিই জনপ্রিয় এই মেসেজিং অ্যাপের মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা টাকাও পাঠাতে পারবেন। আর মাত্র কয়েকদিনের অপেক্ষা। তারপরই গ্রাহকরা এই সুবিধে পাবেন। শুধু মেসেজিং অ্যাপ নয়, হোয়াটসঅ্যাপকে আরও ভালভাবে যাতে ব্যবহার করা যায় তাই এই পদক্ষেপের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বহুদিন ধরেই হোয়াটসঅ্যাপের মালিকানা রয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের হাতে। তাঁরাই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই এই ফিচারটি পরীক্ষানিরীক্ষার পর্যায়ে রয়েছে। আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েড দু’‌ধরনের হোয়াটসঅ্যাপ ভার্সনেই পাওয়া যাবে এই সুবিধা। জেনে নিন এই নয়া ফিচার সম্পর্কে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য:‌

 

১.‌ এই পরিষেবা পুরোপুরি বিনামূল্য ব্যবহার করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। দিতে হবে না কোনও অতিরিক্ত কোনও টাকা।

২.‌ যারা এই মুহূর্তে ফিচারটি ব্যবহার করছেন তাঁদের মত অনুযায়ী, হোয়াটসঅ্যাপের সেটিংসের মধ্যেই ‘‌পেমেন্ট’ ফিচারটি থাকবে। নোটিফিকেশন এবং ডেটা এবং স্টোরেজ অপশনের মাঝে। ওই ফিচারটিতে ক্লিক করলে 'Send and receive money securely with UPI' নামে একটি পেজ খুলবে।  এরপর ‘‌Accept and Continue’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। এরপর এসএমএস–এর মাধ্যমে ফোন নম্বর ভেরিফাই করতে হবে। আর তারপর ‌ হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে টাকা লেনদেন করতে কোনও সমস্যাই থাকবে না।

৩.‌ ইউপিআই ব্যবস্থার মাধ্যমে হোয়াটসঅ্যাপে টাকা আদান প্রদান করা যাবে। মনে করা হচ্ছে ভারতে এই পরিষেবা তুমুল জনপ্রিয় হবে কারণ এদেশে প্রতি মাসে ১.‌৫ বিলিয়ন মানুষ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন। এই ইউপিআই ব্যবস্থা হল ‘‌Unified Payments Interface’, যা কিনা প্রত্যেকের জন্য আলাদা। এই ব্যবস্থায় আইএমপিএস পদ্ধতির মাধ্যমে টাকা পাঠানো হয়। যাতে কিনা সাধারণ নেট ব্যাঙ্কিং অর্থাৎ এনইএফটি পরিবেষার থেকেও ‌দ্রুত টাকা পাঠানো সম্ভব। আর এই পরিষেবা চালানোর জন্য দেশের বিভিন্ন ব্যাঙ্কের সঙ্গেও নাকি গাঁটছড়া বাঁধতে চলেছে হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top