আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মার্চের দ্বিতীয় সপ্তাহেই মাথায় ভেঙে পড়তে পারে স্বর্গের প্রাসাদ। না, এর সঙ্গে দেবরাজ ইন্দ্রের অমরাবতীর কোনও সম্পর্ক নেই। এটা চীনা প্রাসাদ। 
খুলে বলতে হয়। ২০১৬ সালে তাদের নিজস্ব মহাকাশ স্টেশন তিয়াংগং–১ বা স্বর্গের প্রাসাদের উপর সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে চীন। তারপর থেকে অনিয়ন্ত্রিত সেই মহাকাশ স্টেশন ধেয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে। মহাকাশ বিশেষজ্ঞদের অনুমান ফেব্রুয়ারির শেষ বা মার্চের শুরুতে পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে ঢুকে যাবে তিয়াংগং–১। তবে একটি বেসরকারি মহাকাশ গবেষণা সংস্থার সাম্প্রতিক পরীক্ষা অনুযায়ী, মার্চের দ্বিতীয় সপ্তাহেই বায়ুমণ্ডলে ধাক্কা খেয়ে পৃথিবীতে ঢুকে পড়বে তিয়াংগং–১–এর ধ্বংসাবশেষ।

যদিও মহাকাশ বিজ্ঞানীদের প্রাথমিক পরীক্ষানিরীক্ষা অনুযায়ী, পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে ঢোকার মুহূর্তেই ধাক্কা লেগে গুঁড়িয়ে যেতে পারে নষ্ট মহাকাশ স্টেশনটির অধিকাংশ যন্ত্র। তা সত্ত্বেও কিছু কিছু যন্ত্রাংশ আছড়ে পড়তে পারে পৃথিবীর বুকে। যেখানে সেগুলি পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে, পৃথিবীর সেই অংশ জলভাগ। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, যে যন্ত্রাংশগুলি পৃথিবীতে পড়তে পারে তার ওজন ১০০ কেজির বেশি। তিয়াংগং–১–এর ধ্বংসাবশেষে এখনও রয়ে গিয়েছে বিষাক্ত জ্বালানি গ্যাস হাইড্রাজাইন যা মানুষের নার্ভাস সিস্টেম এবং যকৃতের ক্ষতি করতে পারে। তাই যদি কেউ ওই টুকরো দেখতেও পান, তাহলে আচমকা কাউকে তা না ছুঁতে পরামর্শ দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।            

জনপ্রিয়

Back To Top