আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌অসম্ভব দ্রুত গতিতে পৃথিবীর দিকে ছুটে আসছে একটি ঘাতক গ্রহাণু। চাঞ্চল্যকর দাবি নাসার। নাসা জানিয়েছে, আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর ৪৬০ ফুটেরও বেশি উচ্চতার একটি গ্রহাণু পৃথিবীর খুব কাছাকাছি চলে আসবে। গ্রহাণুর গতিবেগ পরিমাপ করে জানিয়েছে, সেকেন্ডে প্রায় ২২ কিলোমিটার বেগে পৃথিবীর দিকে ছুটে আসছে এই বৃহদাকার গ্রহাণুটি। গ্রহাণুটির নাম দেওয়া হয়েছে ১৯৯৮ এফ এফ ১৪। পৃথিবী থেকে ০.‌০২৭৮০ অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল ইউনিটের মধ্যে দিয়ে উড়ে যাবে সেটি। যেহেতু গ্রহাণুটি পৃথিবীর ০.০২ অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল ইউনিট পরিসরের মধ্যে রয়েছে, তাই এটি সম্ভাব্য বিপজ্জনক হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। তবে এমনটা মনে করার কোনও কারণ নেই যে পৃথিবীতে এসে আছড়ে পড়বে সেটি। প্রতিনিয়ত গ্রহাণুটির গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করছে নাসা। নাসা জানিয়েছে, পৃথিবীর অভিকর্ষজ টানের কারণেই কয়েক মিটার আকারের ছোট ছোট গ্রহাণু মাসে বেশ কয়েকবার পৃথিবী এবং চাঁদের কক্ষপথের মধ্যে ঢুকে পড়ে। এই গ্রহাণুগুলি পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে বারবার আঘাত হানে এবং প্রতিদিনই প্রায় মহাকাশে বিস্ফোরিত হয়। যে কারণে মাঝেমাঝেই রাতের আকাশে তারা খসা দেখতে পাওয়া যায়। কখনও কখনও এগুলি উল্কা হিসাবে পৃথিবীর মাটিতেও ধেয়ে আসে। 
পৃথিবীর দিকে এই গ্রহাণুগুলি ধেয়ে আসা ঘিরে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে জ্যোতির্বিজ্ঞানী মহলে। তবে বিজ্ঞানীরাই বলছেন এই মহাজাগতিক বিষয় নিয়ে আতঙ্কের কিছু নেই। কারণ পৃথিবীর দিকে এগুলি এগিয়ে এলেও, তার পৃথিবীর পাশ কাটিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। আর বেশিরভাগ সময়েই এই গ্রহাণু মহাকাশেই পুড়ে ধ্বংস হয়ে যায়। 

জনপ্রিয়

Back To Top