রাশিয়ান মডিউলের ধাক্কায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছিল আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন! ব্যবস্থা নিল নাসা 

আজকাল ওয়েবডেস্ক: আচমকাই নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গিয়েছিল আন্তর্জাতিক স্পেশ স্টেশন (আইএসএস)! স্পেশ স্টেশনে সদ্য আসা এক রাশিয়ান রিসার্চ মডিউলটি থেকে অসাবধানতাবশত জেট থ্রাস্টার সক্রিয় হয়ে যায়।

এর ফলে স্বাভাবিক অবস্থান থেকে খানিকটা চ্যূত হয় আইএসএস। স্পেশ স্টেশনে উপস্থিত সাত জন ক্রু মেম্বারদের কোনও ক্ষতি হয়নি বলে জানিয়েছে নাসা।

 

নাসার তরফে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, সাময়িক সমস্যা হলেও এখন সবদিক সামলে নেওয়া হয়েছে। ক্রু মেম্বারদের কখনওই বিপদের আশঙ্কা ছিল না। আইএসএস-এ ছিলেন দুই রাশিয়ান কসমোনট, তিন আমেরিকান অ্যাস্ট্রোনট, একজন জাপানি অ্যাস্ট্রোনট এবং ইউরোপীয় এজেন্সির পক্ষ থেকে এক ফরাসি অ্যাস্ট্রোনট। 
সব ঠিক হয়ে গেলেও এই ঘটনার পর বোয়িং-এর নতুন সিএসটি-১০০ স্টারলাইন ক্যাপসুল লঞ্চ করা ৩ আগস্ট পর্যন্ত স্থগিত রেখেছে নাসা। বৃহস্পতিবার নতুন নওকা মডিউল স্পেস স্টেশনে পাঠায় রাশিয়া। ডকিং পরবর্তী ‘রিকনফিগারেশন’ প্রক্রিয়া নিয়ে পরীক্ষা চালাচ্ছিল তারা। এই নওকা আসার ঘণ্টা তিনেক পরেই যাবতীয় সমস্যার সূত্রপাত। ভূপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ২৫০ মাইল (৪০২ কিমি) ওপরে অবস্থিত আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন নিজের জায়গা থেকে সরে যায়। পরে গ্রাউন্ড কন্ট্রোল থেকে সেটিকে আগের জায়গায় ফিরিয়ে আনা হয়।
নাসার তরফে জানানো হয়েছে, এই নিজের জায়গায় ফিরিয়ে আনা যেন অনেকটা দড়ি টানাটানির মতো ছিল। এই প্রক্রিয়ায় বারকয়েক ক্রু মেম্বারদের সঙ্গে যোগাযোগ ছিন্ন হয়ে গেলেও তাঁদের বিরাট কোনও বিপদ ছিল না। যদি স্পেস স্টেশনকে নিয়ন্ত্রণে আনা না যেত তবে ‘লাইফবোট’ হিসেবে রাখা স্পেসএক্স (SpaceX) ক্রু ক্যাপসুলে চেপে পৃথিবীতে ফিরে আসতে পারতেন তাঁরা।       
 

আকর্ষণীয় খবর