আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আগের থেকে এখন পৃথিবীর রাত অনেক বেশি আলোকিত। যত দিন যাচ্ছে ততই পৃথিবীর রাতগুলি বিজলিবাতির আলোয় আলোকিত হয়ে ওঠার ফলে মহাকাশ থেকে দেখলে মনে হচ্ছে দিন যায়নি। ২০১২–১৬ পর্যন্ত প্রতিবছরই ২.‌২ শতাংশ করে রাতের আলো বেড়েছে। সমীক্ষায় এই দাবি করেছে জার্মানির ভূবিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রের গবেষক ক্রিস্টোফার কাইবা নেতৃত্বাধীন বিজ্ঞানী দল। বুধবার বিজ্ঞান পত্রিকা সায়েন্স অ্যাডভান্সেস–এ সেই সমীক্ষা রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে। রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে এই আলোকিত অংশের বেশিরভাগটাই মধ্য এশিয়ায় ব্যাপৃত। ক্রমে এই আলো প্রতিফলিত হয়ে, যে সব অঞ্চলে রাত এবং দিনের আলোর তফাত বোঝা যায়, সেটাও ভবিষ্যতে মিটিয়ে দিতে পারে।
কাইবা বলেছেন, এখন মানুষ সাধারণত শর্ট ওয়েভলেন্থের নীল এলইডি ব্যবহার করে, যা কিছুটা সাশ্রয়কারী এবং দূষণ ছড়ায় না। তবে এলইডির–র এই নীল কৃত্তিম আলো মানুষের শারীরিক ক্ষতি করছে পরোক্ষে। কারণ, হাল্কা হলেও এই আলো থেকে যে তাপ প্রতিফলিত হচ্ছে তা ঘুমের ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে, যার ফলে শারীরিক অবসাদ মিটছে না এবং মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়ছে। 
বিজ্ঞানীদের আশা, ভবিষ্যতে যদি মানুষ রাতের আকাশকে আরও আঁধার দেখতে চান এবং রাতে শুতে যাওয়ার সময় কোনও আলোই না জ্বালান, তাহলেই হয়ত পৃথিবীতে রাতের স্নিগ্ধতা ফিরে আসবে।               ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top