আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ডুয়েল সিম ফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা অনেক বেড়েছে। কেউ একটি সিম ব্যবহার করেন ফোনের জন্য। অপরটি ফেসবুক করার জন্য। কারও আবার একটি সিম অফিসের দেওয়া। নিজস্ব সিমটি আবার ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করা হয়। কিন্তু ডুয়েল সিম ব্যবহার কতটা বিরক্তিকর তা কী জানেন?‌ দেখে নেওয়া যাক ডুয়েল সিম ব্যবহারের চারটি নেগেটিভ দিক। 
১.‌ ডুয়েল সিমে আপনার ফোনের স্ক্রিনে নানা নোটিফিকেশন থাকে। যেমন, লোকেশন, ওয়াই ফাই, ব্লু টুথ, স্ক্রিন রোটেশন, মোবাইল ডেটা, জিপিএস, ফ্লাইট মোড। স্ক্রিন অন করলেই নানা নোটিফিকেশন। যা দেখে একসময় আপনারই বিরক্তি লাগবে। 
২.‌ ডুয়েল সিম ব্যবহার করলে ফোনের ব্যাটারীর আয়ু কমে যায়। ফোন দীর্ঘক্ষণ চার্জ তো দিতে হয়ই। সবসময় চার্জ দেওয়ার সময়ও থাকে না। এদিকে প্রয়োজনের সময় দেখবেন ফোনে চার্জ নেই। যা বিরক্তি বাড়ায়। 
৩.‌ ডুয়েল সিমে লাভই বা কী। একটি সিম ব্যবহার করলে অপরটি অটোমেটিক বন্ধ থাকে। যদি দুটো সিম একসঙ্গে চালু না থাকে তবে আপনার ডুয়েল সিম ব্যবহারের দরকারই বা কী। 
৪.‌ ডুয়েল সিম ব্যবহার করলে লুমিয়া ৯২৫, নেক্সাস ৫, এলজি জি ২–র মতো অ্যান্ড্রয়েড ফোন আপনি ব্যবহার করতে পারবেন না। বিকল্প কমে যাবে। কারণ এই ফোনগুলি সিঙ্গল সিম এর।  
 ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top