সঙ্ঘমিত্রা মুখোপাধ্যায়- ‘‌রক্তকরবী’র প্রকাশকাল ১৯২৬–এর ডিসেম্বর। রূপকধর্মী এই নাটক নিয়ে বিস্তর আলোচনা হয়েছে। রবীন্দ্রজীবনীকার প্রশান্ত পাল, প্রমথনাথ বিশী, অশোক সেন, শঙ্খ ঘোষ, সৌমিত্র বসু— কে নেই এই সমালোচকের দলে। এই বহুচর্চিত নাটকটিই ‘‌অসময়ের নাট্যভাবনা’‌র আলোচ্য বিষয়। ভূমিকায় সম্পাদক বলেছেন, ‘‌সময় যেভাবে ডালপালা মেলে ঘিরে ধরে আমাদের, শিকড় চালিয়ে দেয় ভিতরে ভিতরে, নোনাধরা রক্তাভ কালচে সময়ের তীব্র কামড় ফোঁপরা করে, বিশীর্ণ হয় মানবিক ধরনধারণ, তখনই রক্তকরবীর মতো নাটকের প্রয়োজন হয়।’‌ সত্যিই, মানুষের ওপর মানু্যের শোষণ, রাষ্ট্রের সঙ্গে বিভিন্ন পেশার মানু্্্যের বিচিত্র সম্পর্ক, ব্যক্তির অবমাননা, অব্যক্ত প্রেম, বিদ্রোহের ঝড় সবই আছে এই নাটকে। তাই উত্তর আধুনিক যুগেও এই নাটকের অনুষঙ্গ সুতীব্র। সম্পাদকের কথায়, ‘‌রক্তকরবীর যেখানে সমাপ্তি, সেখান থেকে শুরু হতে পারে নতুন রক্তকরবী নাটকের মহড়া। চরিত্ররা শুধু নাটকের মধ্যেই সীমায়িত নয়, তারা ছড়িয়ে আছে আশেপাশে সর্বত্র।’‌ তারই প্রতিফলন দেখি এই পত্রিকায় বিধৃত ‘‌আজও বিশু ভাই’‌, ‘‌এবং ফাগুলাল’‌, ‘‌রঞ্জন আসবেই’‌ ইত্যাদি নাট্যরচনায়। এই পত্রিকার প্রথম নাটক রক্তনন্দিনী তো রক্তকরবীরই ভাবানুসারী। তবে এই নাটকের শেষে রঞ্জনবেশী নন্দিনী আত্মাহুতি দেয়। রক্তকরবীর রাজা, নন্দিনী, সর্দার ও পাগল ভাই বিশুর চরিত্র নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা রয়েছে এই পত্রিকায়। রক্তকরবীর সফল প্রযোজনা ‘‌বহুরূপী’‌ ছাড়াও যে অন্য আরও নাট্যদলের পক্ষে সম্ভব হয়েছিল তার বিশদ আলোচনা পাওয়া যায় অসময়ের নাট্যভাবনায়। জানা যায়, কাঁচরাপাড়ার ‘‌পথসেনা’‌ প্রযোজিত রক্তকরবী নাটকে প্রধান উপদেষ্টার ভূমিকায় ছিলেন বাদল সরকার। বহুরূপীর পর অবশ্যই বহুপ্রশংসিত এই প্রযোজনা। ১৯৭৪–এ বহরমপুরের দুই নাট্যগোষ্ঠী ‘‌ছান্দিক’‌ ও ‘‌প্রান্তিক’‌–এর প্রযোজনায় রক্তকরবীর সফল মঞ্চরূপায়ণ সম্ভব হয়েছিল, জানা যায় এই তথ্যও। বহুরূপীর প্রযোজনায় রক্তকরবী নাটক (‌১৯৫৪)‌ অভিনয়ের আগে ও পরে বিশ্বভারতীর সঙ্গীত সমিতির সঙ্গে বহুরূপীর যে চিঠি চালাচালি হয়েছিল এবং বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় এই নাটকটির যে সমালোচনা প্রকাশিত হয়েছিল, রয়েছে তার সম্পাদিত অংশ বিতর্কে ও সমালোচনায় রক্তকরবী প্রবন্ধটিতে। বহরমপুরের সংশোধনাগারের আবাসিকদের নিয়ে নাট্যকার, নির্দেশক প্রদীপ ভট্টাচার্য ‘‌যক্ষপুরী’‌ নামে নাটকটি মঞ্চস্থ করেন। গোত্রান্তর প্রবন্ধে রয়েছে এই রক্তকরবী নির্মাণের নেপথ্য ভাবনার কথা। রক্তকরবীর পাঠান্তর নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা রয়েছে এই পত্রিকায়। ■
‌‌অসময়ের নাট্যভাবনা:‌ এপ্রিল–ডিসেম্বর • সম্পাদক রঙ্গন দত্তগুপ্ত • ২০০ টাকা‌‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top