আজকাল ওয়েবডেস্ক: রাজ্য তৃতীয় বারের জন্য মসনদে বসেই আজ মন্ত্রিসভার দপ্তর বন্টন ভাগ করে দেন। অন্যান্য বারের মতো এবারেও ক্যাবিনেট মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন কলকাতা পুরসভার পুর প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির আস্থাভাজন সৈনিক হিসেবে এমনিতেই সুনাম রয়েছে ফিরহাদ হাকিমের। সেই ভরসা থেকেই তাঁর হাতে দেওয়া হয়েছে ২ টি মন্ত্রকের দায়িত্ব। পরিবহণ এবং আবাসন মন্ত্রী হিসেবে কাজ করবেন ববি হাকিম। আগের বার ববি হাকিমের অধীনে পুর ও নগরোন্নয়ন দপ্তরের দায়িত্ব ছিল। এবার দপ্তর বদল হয়েছে তাঁর। এ প্রসঙ্গে ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘পরিবহণ এবং আবাসন দপ্তরের মন্ত্রী পদ পেয়ে দায়িত্ব অনেকটা বেড়ে গেল। প্রতিনিয়ত আমাদের কোভিডের সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যেতে হবে। মারণ ভাইরাস করোনার সঙ্গে লড়তে গিয়ে হয়তো জীবন শেষও হয়ে যেতে পারে কিন্তু পিছিয়ে আসার কোনও জায়গা নেই। মানুষের স্বার্থে এই লড়াই জারি থাকবে। দেশের প্রধানমন্ত্রী কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ব্যর্থ হয়েছেন। কেন্দ্রের বঞ্চনার বিরুদ্ধেও লড়াই চলবে। আনন্দ উপভোগ করার সময় এখন নয়। রাজ্যের রাজনৈতিক হিংসার জন্য বিজেপিকে নিশানা করেন তিনি। রাজ্যপালের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন ফিরহাদ হাকিম। নব নির্বাচিত বিধানসভায় বেশ কয়েকজন মন্ত্রীর অভিষেক ঘটল এদিন। পরিবহণ দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী হয়েছেন দিলীপ মন্ডল। ববি হাকিমের সহকারী হিসেবে কাজ করবেন তিনি। এর পাশাপাশি খাদ্যমন্ত্রী হয়েছেন মধ্যমগ্ৰামের দীর্ঘদিনের বিধায়ক রথীন ঘোষ। ব্রাত্য বসু পেয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রকের দায়িত্ব। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি নিজে স্বরাষ্ট্র, স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দপ্তরও নিজের হাতে রেখেছেন।

জনপ্রিয়

Back To Top