আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিমানের ভিতরে নাকি বড্ড গরম। আর তাই বিমানের আপৎকালীন দরজা খুলে ডানায় উঠে পড়লেন তিনি। আচমকা এই ঘটনায় হতবাক হয়ে যান সবাই। কী করবেন, তা বুঝে উঠতে পারছিলেন না কর্মীরা। অবশেষে ওই মহিলাকে নামিয়ে আনা হয় ডানার উপর থেকে। এই ঘটনার জন্য তাঁকে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে বলে খবর। অর্থাৎ আগামী দিনে আর বিমানে উঠতে পারবেন না তিনি।
ঘটনাটি ঘটেছে ইউক্রেনের কিয়েভে। তুরস্ক থেকে ইউক্রেন এয়ারলাইন্সের বিমান বোয়িং ৭৩৭–৮৬এন কিয়েভ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মাটি ছোঁয়ার পরেই এই ঘটনা ঘটে। ইউক্রেন এয়ারলাইন্সের তরফে জানানো হয়েছে, বিমান অবতরণের পরেই ওই মহিলা অভিযোগ করেন তাঁর গরম লাগছে। একথা বলে বিমানের আপৎকালীন দরজা খুলে ডানায় উঠে সেখানে হাঁটাহাঁটি করতে শুরু করেন তিনি। তাঁর দাবি, কিছুটা হাওয়া খাওয়ার জন্য সেখানে উঠে পড়েছিলেন তিনি।
দুই সন্তান রয়েছে ওই মহিলার। তারাও মায়ের এই কাজে অবাক হয়ে যায়। ওই বিমানেরই আর এক যাত্রী জানিয়েছেন, ‘‌বিমান অবতরণের পরে সবাই প্রায় নেমে পড়েছিলেন। সেই সময় ওই মহিলা বিমানের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে আপৎকালীন দরজা পর্যন্ত হেঁটে গিয়ে তারপর তা খুলে বাইরে বেরিয়ে যান। ওই মহিলার দুই সন্তান আমার পাশেই দাঁড়িয়েছিল। তারাও অবাক হয়ে বলতে থাকে, উনি আমাদের মা।’‌ 
এই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে বিমানের ডানায় হেঁটে বেড়াচ্ছেন ওই মহিলা।
ইউক্রেন ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের তরফে জানানো হয়েছে, এই ঘটনার জন্য ওই মহিলাকে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। একটা বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে, ‘‌বিমানের সুরক্ষা বিধি ও বিমানের ভিতরের নিয়ম কানুন ভেঙেছেন ওই মহিলা। তাই তাঁকে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। অর্থাৎ উনি আর কোনওদিন বিমানে উঠতে পারবেন না। এছাড়া বড় টাকার জরিমানাও তাঁকে করা হয়েছে। নিজের এই কাজের কোনও সঠিক কারণ তিনি দেখাতে পারেননি। খালি বলেছেন তাঁর গরম লাগছিল বলেই তিনি এটা করেছেন।’‌ তবে মহিলা মদ্যপ ছিলেন না বলে পরীক্ষায় জানা গেছে। 

 

 

 

 

জনপ্রিয়

Back To Top